ঢাকা ১১:০৮ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১০ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

পদ্মা নদীকে বালু খেকোদের কবল হতে রক্ষা করতে কঠোর অবস্থানে নাজিরগঞ্জ নৌপুলিশের ওসি সাইদুর রহমান

  • নিজস্ব সংবাদ :
  • আপডেট সময় ০৭:১২:৪২ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৯ নভেম্বর ২০২৩
  • ২৪ বার পড়া হয়েছে

রাজবাড়ী প্রতিনিধি, রাজবাড়ীর দৌলতদিয়া ফেরীঘাট হইতে পাবনা জেলার পাকশি পর্যন্ত পদ্মা নদীকে বালু খেকোদের কবল হতে রক্ষা করতে কঠোর অবস্থানে থাকার দিকনির্দেশনা দিয়েছে নৌপুলিশ রাজশাহী অঞ্চলের পুলিশ সুপার মোঃ রুহুল কবির খান ও নৌপুলিশের ফরিদপুর অঞ্চলের পুলিশ সুপার আশিক সাঈদ।

তারইধারাবাহিকতায়, সোমবার সকাল হতে দুপুর পর্যন্ত পদ্মা নদীর পাবনার পাকশি হতে রাজবাড়ীর উড়াকান্দ পর্যন্ত মহড়া অভিযান চালায় নৌপুলিশের নাজিরগঞ্জ নৌপুলিশ ফাঁড়ি ও লক্ষীকুন্ডা নৌ পুলিশ ফাঁড়ির শতাধিক পুলিশ সদস্যরা। এতে মুহুর্তের মধ্যেই ছত্রভঙ্গ হয়ে পালিয়ে যায় পদ্মানদীতে অবৈধ বালু উত্তোলন কারীরা।

উল্লেখ্য,মহামান্য হাইকোর্টের রায় অনুসারে রাজবাড়ীর দৌলতদিয়া হতে পাকশি পর্যন্ত পদ্মানদীতে বালু উত্তোলন, পরিবহন,বালুবাহী ভাল্বগেট চলাচলের উপর নিষেধাজ্ঞা জারী থাকলেও, দীর্ঘদিন যাবত তা মানছিলো না একটি প্রভাবশালী বালু উত্তোলন কারী চক্র। তারা প্রকাশ্যে পদ্মা নদীর একাধিক স্থান থেকে বালু উত্তোলন করে যাচ্ছিলো। এবার সেই চক্রটি ধরতে নৌপুলিশ নিয়মিত শুরু করেছে এমন সাড়াশি অভিযান।

এবিষয়ে নাজিরগঞ্জ নৌপুলিশ ফাঁড়ির অফিসার ইনচার্জ সাইদুর রহমান জানান,নৌপুলিশের যৌথ অভিযানে পদ্মা নদীতে অবৈধ বালু উত্তোলন পুরোপুরি বন্ধ করা হয়েছে। নৌপুলিশের রাজশাহী ও ফরিদপুর অঞ্চলের পুলিশ সুপার মহাদয়ের যৌথ নেতৃত্বে পদ্মা নদীতে বালু উত্তোলন বিরুদ্ধে নিয়মিত অভিযান অব্যাহত থাকবে।

মোঃ সুজন খন্দকার
রাজবাড়ী প্রতিনিধি।

জনপ্রিয় সংবাদ

দাঁড়ি বড় রাখায় যুবককে পেটালেন ইউপি চেয়ারম্যান ও তার ছেলে!

পদ্মা নদীকে বালু খেকোদের কবল হতে রক্ষা করতে কঠোর অবস্থানে নাজিরগঞ্জ নৌপুলিশের ওসি সাইদুর রহমান

আপডেট সময় ০৭:১২:৪২ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৯ নভেম্বর ২০২৩

রাজবাড়ী প্রতিনিধি, রাজবাড়ীর দৌলতদিয়া ফেরীঘাট হইতে পাবনা জেলার পাকশি পর্যন্ত পদ্মা নদীকে বালু খেকোদের কবল হতে রক্ষা করতে কঠোর অবস্থানে থাকার দিকনির্দেশনা দিয়েছে নৌপুলিশ রাজশাহী অঞ্চলের পুলিশ সুপার মোঃ রুহুল কবির খান ও নৌপুলিশের ফরিদপুর অঞ্চলের পুলিশ সুপার আশিক সাঈদ।

তারইধারাবাহিকতায়, সোমবার সকাল হতে দুপুর পর্যন্ত পদ্মা নদীর পাবনার পাকশি হতে রাজবাড়ীর উড়াকান্দ পর্যন্ত মহড়া অভিযান চালায় নৌপুলিশের নাজিরগঞ্জ নৌপুলিশ ফাঁড়ি ও লক্ষীকুন্ডা নৌ পুলিশ ফাঁড়ির শতাধিক পুলিশ সদস্যরা। এতে মুহুর্তের মধ্যেই ছত্রভঙ্গ হয়ে পালিয়ে যায় পদ্মানদীতে অবৈধ বালু উত্তোলন কারীরা।

উল্লেখ্য,মহামান্য হাইকোর্টের রায় অনুসারে রাজবাড়ীর দৌলতদিয়া হতে পাকশি পর্যন্ত পদ্মানদীতে বালু উত্তোলন, পরিবহন,বালুবাহী ভাল্বগেট চলাচলের উপর নিষেধাজ্ঞা জারী থাকলেও, দীর্ঘদিন যাবত তা মানছিলো না একটি প্রভাবশালী বালু উত্তোলন কারী চক্র। তারা প্রকাশ্যে পদ্মা নদীর একাধিক স্থান থেকে বালু উত্তোলন করে যাচ্ছিলো। এবার সেই চক্রটি ধরতে নৌপুলিশ নিয়মিত শুরু করেছে এমন সাড়াশি অভিযান।

এবিষয়ে নাজিরগঞ্জ নৌপুলিশ ফাঁড়ির অফিসার ইনচার্জ সাইদুর রহমান জানান,নৌপুলিশের যৌথ অভিযানে পদ্মা নদীতে অবৈধ বালু উত্তোলন পুরোপুরি বন্ধ করা হয়েছে। নৌপুলিশের রাজশাহী ও ফরিদপুর অঞ্চলের পুলিশ সুপার মহাদয়ের যৌথ নেতৃত্বে পদ্মা নদীতে বালু উত্তোলন বিরুদ্ধে নিয়মিত অভিযান অব্যাহত থাকবে।

মোঃ সুজন খন্দকার
রাজবাড়ী প্রতিনিধি।