ঢাকা ০৮:২১ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ১৯ এপ্রিল ২০২৪, ৬ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ঝালকাঠির কাঠালিয়ায় আদালতের নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা করে ভবন নির্মাণ

  • নিজস্ব সংবাদ :
  • আপডেট সময় ০৭:৫২:০৫ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১৪ জুলাই ২০২৩
  • ৪৬ বার পড়া হয়েছে

ঝালকাঠি প্রতিনিধিঃ ঝালকাঠির কাঠালিয়া উপজেলায় আদালতের নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা করে বিরোধপূর্ণ জমিতে একটি পক্ষ স্থাপনা নির্মান করছে। উপজেলার আমুয়া ইউনিয়নে জিরো পয়েন্টে আদালতের নিষেধাজ্ঞা তোয়াক্কা না করে মাহাবুব হাওলাদার ভবন নির্মানের কাজ চালিয়ে যাচ্ছে। তবে এ ব্যপারে আইশৃঙ্খলা বাহিনীর সহয়তা না পাওয়ার অভিযোগ করছে ভূক্তভোগী পরিবার। অভিযুক্ত মাহাবুব হাওলাদার পাটিখালঘাটা ইউনিয়নের জোড়খালী প্রামের মৃত আলতাফ হাওলাদারের ছেলে।

আজ ১৪ জুলাই সকালে ভূক্তভোগী আমুয়া গ্রামের মোঃ লিয়াকত আলী ওরফে কালু জানান, দীর্ঘদিন যাবত আমুয়া মৌজা ২১৬৪, ২১৬৬, ৮৯০ খতিয়ানে আমাদের পৈত্রিক ক্রয়কৃত ৩২ শতাংশ জমি নিয়ে স্থানীয় মাহাবুব হাওলাদার ও শ্যামল দাসের সাথে ঝামেলা চলে আসছে। বর্তমানে এটি নিয়ে ঝালকাঠি সহকারী জজ আদালতে একটি মমলা চলমান আছে। ২০২২ সালে আমি বাদী হয়ে মামলাটি করি। গত ২৬ জুন ২০২৩ইং তারিখ উক্ত জমিতে আদালত কর্তৃক নিষেধাজ্ঞা বা স্থিতাবস্থার আদেশ প্রদান করেন। আদলতের নিষেধাজ্ঞা সত্বেও বিল্ডিং নির্মান করিতেছে প্রতিপক্ষরা। লিয়াকত আলী আরও জানান, স্থানীয় জনপ্রতিনিধি, গন্যমান্য ব্যক্তিদের দ্বারে দ্বারে ঘুরেও সঠিক বিচার পাচ্ছি না। আদালত পুলিশকে নির্দেশ দেওয়ার পরও তারা ভবন নির্মান বন্ধের কাজে এগিয়ে আসছে না।
এবিষয় কাঠালিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ শহিদুল ইসলাম জানান, আমরা আদালতের নির্দেশনা পেয়ে বিবাদীদের নোটিশ প্রদান করেছি। এখন যদি তারা নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা করে ভবন নির্মানের কাজ চালিয়ে যায়, তাহলে বাদী পক্ষ আদালতে গিয়ে আবারও নিষেধজ্ঞার নোটিশ আনলে আমরা ব্যবস্থা নিবো।

এইচ এম নাসির উদ্দিন আকাশ
ঝালকাঠি প্রতিনিধি
০১৭১৩৯৬৩৬৭৫

ট্যাগস :

রাজবাড়ীর পাংশায় প্রান্তিক জনকল্যাণ সংস্থা কতৃক আয়োজিত ঈদ পূর্ণমিলন

ঝালকাঠির কাঠালিয়ায় আদালতের নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা করে ভবন নির্মাণ

আপডেট সময় ০৭:৫২:০৫ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১৪ জুলাই ২০২৩

ঝালকাঠি প্রতিনিধিঃ ঝালকাঠির কাঠালিয়া উপজেলায় আদালতের নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা করে বিরোধপূর্ণ জমিতে একটি পক্ষ স্থাপনা নির্মান করছে। উপজেলার আমুয়া ইউনিয়নে জিরো পয়েন্টে আদালতের নিষেধাজ্ঞা তোয়াক্কা না করে মাহাবুব হাওলাদার ভবন নির্মানের কাজ চালিয়ে যাচ্ছে। তবে এ ব্যপারে আইশৃঙ্খলা বাহিনীর সহয়তা না পাওয়ার অভিযোগ করছে ভূক্তভোগী পরিবার। অভিযুক্ত মাহাবুব হাওলাদার পাটিখালঘাটা ইউনিয়নের জোড়খালী প্রামের মৃত আলতাফ হাওলাদারের ছেলে।

আজ ১৪ জুলাই সকালে ভূক্তভোগী আমুয়া গ্রামের মোঃ লিয়াকত আলী ওরফে কালু জানান, দীর্ঘদিন যাবত আমুয়া মৌজা ২১৬৪, ২১৬৬, ৮৯০ খতিয়ানে আমাদের পৈত্রিক ক্রয়কৃত ৩২ শতাংশ জমি নিয়ে স্থানীয় মাহাবুব হাওলাদার ও শ্যামল দাসের সাথে ঝামেলা চলে আসছে। বর্তমানে এটি নিয়ে ঝালকাঠি সহকারী জজ আদালতে একটি মমলা চলমান আছে। ২০২২ সালে আমি বাদী হয়ে মামলাটি করি। গত ২৬ জুন ২০২৩ইং তারিখ উক্ত জমিতে আদালত কর্তৃক নিষেধাজ্ঞা বা স্থিতাবস্থার আদেশ প্রদান করেন। আদলতের নিষেধাজ্ঞা সত্বেও বিল্ডিং নির্মান করিতেছে প্রতিপক্ষরা। লিয়াকত আলী আরও জানান, স্থানীয় জনপ্রতিনিধি, গন্যমান্য ব্যক্তিদের দ্বারে দ্বারে ঘুরেও সঠিক বিচার পাচ্ছি না। আদালত পুলিশকে নির্দেশ দেওয়ার পরও তারা ভবন নির্মান বন্ধের কাজে এগিয়ে আসছে না।
এবিষয় কাঠালিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ শহিদুল ইসলাম জানান, আমরা আদালতের নির্দেশনা পেয়ে বিবাদীদের নোটিশ প্রদান করেছি। এখন যদি তারা নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা করে ভবন নির্মানের কাজ চালিয়ে যায়, তাহলে বাদী পক্ষ আদালতে গিয়ে আবারও নিষেধজ্ঞার নোটিশ আনলে আমরা ব্যবস্থা নিবো।

এইচ এম নাসির উদ্দিন আকাশ
ঝালকাঠি প্রতিনিধি
০১৭১৩৯৬৩৬৭৫