ঢাকা ০১:৩৭ অপরাহ্ন, সোমবার, ০৪ মার্চ ২০২৪, ২১ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

কুকুরে কামড়ানো অসুস্থ গরুর মাংস বিক্রির পায়তারা, দেড় লাখ টাকা জরিমানা

  • নিজস্ব সংবাদ :
  • আপডেট সময় ০১:২৯:৫৫ অপরাহ্ন, বুধবার, ১২ জুলাই ২০২৩
  • ৫৭ বার পড়া হয়েছে

সাইফুল ইসলাম, মানিকগঞ্জ প্রতিনিধি, ১২ জুলাই
মানিকগঞ্জে কুকুরে কামড়ানো ৬ মাসের অসুস্থ গর্ভবতী গাভী জবাই করে বিক্রির চেষ্টা করার সময় তিন মণ মাংস জব্দ এবং মাংস ব্যবসায়ী ও গরুর বেপারিকে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইনে দেড় লক্ষ টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

গোপন সংবাদের ভিত্তিতে মঙ্গলবার সন্ধ্যা থেকে বুধবার সকাল পর্যন্ত অভিযান চালিয়ে মাংস ব্যবসায়ী সাগর আলীর দোকান থেকে ওই অসুস্থ গরুর তিন মণ মাংস জব্দ করা হয়। এসময় মাংস ব্যবসায়ী সাগর আলীকে ১ লক্ষ টাকা ও গরুর বেপারি সাগরকে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করেন জেলা ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক আসাদুজ্জামান রুমেল।

বুধবার (১২ জুলাই) সকালে বিষয়টি নিশ্চিত করেন আসাদুজ্জামান রুমেল।

তিনি বলেন, গতকাল (মঙ্গলবার) সন্ধ্যায় গোপন সংবাদের মাধ্যমে জানা যায় ঘিওর থেকে একটি পিকআপ ভ্যানে কুকুরের কামড়ে অসুস্থ হয়ে যাওয়া ৬ মাসের গর্ভবতী গাভী জবাই করে বিক্রির জন্য মানিকগঞ্জ বাসস্ট্যান্ডে কসাই পট্টিতে নেয়া হচ্ছে। সংবাদ পেয়ে মানিকগঞ্জ বাসস্ট্যান্ড এলাকায় অভিযানে নামে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের টিম। টিমের উপস্থিতি টের পেয়ে মাংস বোঝাই পিকআপ বিভিন্ন স্থান ঘুরে সাগর আলীর বাড়িতে রাখে। বিষয়টি নিশ্চিত হয়ে আজ (বুধবার) সকাল ৭ টায় বাসস্ট্যান্ডে অভিযুক্ত ব্যবসায়ী সাগর আলীর দোকানে বিক্রয়ের জন্য সংরক্ষণ করা প্রায় ৩ মণ মাংস জব্দ করা হয়েছে। সাগর আলীর স্বীকারোক্তি অনুযায়ী গরুর বেপারি সাগরকে স্পটে হাজির করা হয়। সে অতিমুনাফার লোভে অসুস্থ গরুটি ৫৫০০০ টাকায় ক্রয় করে সাগর আলীর কাছে বিক্রয় করেন। এই দুই ব্যবসায়ীর যোগসাজশে কুকুরে কামড়ানো অসুস্থ ৬ মাসের গর্ভবতী গাভীর মাংস বিক্রির পায়তারা করেছিলো।

তিনি আরো জানান, জব্দকৃত মাংস মাটিচাপা দিয়ে বিনষ্ট করা হয়েছে। ভবিষ্যতে এই ধরনের অপকর্ম করবে না মর্মে মুচলেকা প্রদান করেন অভিযুক্ত দুই ব্যবসায়ী।

অভিযানে সহযোগিতা করেন মানিকগঞ্জ সদর উপজেলা পাণিসম্পদ কর্মকর্তা ডা. মো: আজিজুর রহমান, , জেলা স্যানিটারি ইন্সপেক্টর মো: আব্দুল হান্নান, সদর উপজেলা স্যানিটারি ইন্সপেক্টর মোশারফ হোসেন, ক্যাবের জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক শামসুন্নবী তুলিপ ও সদর থানা পুলিশের দুইটি টিম।

জনপ্রিয় সংবাদ

সালথায় কৃষককে কুপিয়ে হত্যায় পাঁচ জনের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড

কুকুরে কামড়ানো অসুস্থ গরুর মাংস বিক্রির পায়তারা, দেড় লাখ টাকা জরিমানা

আপডেট সময় ০১:২৯:৫৫ অপরাহ্ন, বুধবার, ১২ জুলাই ২০২৩

সাইফুল ইসলাম, মানিকগঞ্জ প্রতিনিধি, ১২ জুলাই
মানিকগঞ্জে কুকুরে কামড়ানো ৬ মাসের অসুস্থ গর্ভবতী গাভী জবাই করে বিক্রির চেষ্টা করার সময় তিন মণ মাংস জব্দ এবং মাংস ব্যবসায়ী ও গরুর বেপারিকে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইনে দেড় লক্ষ টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

গোপন সংবাদের ভিত্তিতে মঙ্গলবার সন্ধ্যা থেকে বুধবার সকাল পর্যন্ত অভিযান চালিয়ে মাংস ব্যবসায়ী সাগর আলীর দোকান থেকে ওই অসুস্থ গরুর তিন মণ মাংস জব্দ করা হয়। এসময় মাংস ব্যবসায়ী সাগর আলীকে ১ লক্ষ টাকা ও গরুর বেপারি সাগরকে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করেন জেলা ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক আসাদুজ্জামান রুমেল।

বুধবার (১২ জুলাই) সকালে বিষয়টি নিশ্চিত করেন আসাদুজ্জামান রুমেল।

তিনি বলেন, গতকাল (মঙ্গলবার) সন্ধ্যায় গোপন সংবাদের মাধ্যমে জানা যায় ঘিওর থেকে একটি পিকআপ ভ্যানে কুকুরের কামড়ে অসুস্থ হয়ে যাওয়া ৬ মাসের গর্ভবতী গাভী জবাই করে বিক্রির জন্য মানিকগঞ্জ বাসস্ট্যান্ডে কসাই পট্টিতে নেয়া হচ্ছে। সংবাদ পেয়ে মানিকগঞ্জ বাসস্ট্যান্ড এলাকায় অভিযানে নামে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের টিম। টিমের উপস্থিতি টের পেয়ে মাংস বোঝাই পিকআপ বিভিন্ন স্থান ঘুরে সাগর আলীর বাড়িতে রাখে। বিষয়টি নিশ্চিত হয়ে আজ (বুধবার) সকাল ৭ টায় বাসস্ট্যান্ডে অভিযুক্ত ব্যবসায়ী সাগর আলীর দোকানে বিক্রয়ের জন্য সংরক্ষণ করা প্রায় ৩ মণ মাংস জব্দ করা হয়েছে। সাগর আলীর স্বীকারোক্তি অনুযায়ী গরুর বেপারি সাগরকে স্পটে হাজির করা হয়। সে অতিমুনাফার লোভে অসুস্থ গরুটি ৫৫০০০ টাকায় ক্রয় করে সাগর আলীর কাছে বিক্রয় করেন। এই দুই ব্যবসায়ীর যোগসাজশে কুকুরে কামড়ানো অসুস্থ ৬ মাসের গর্ভবতী গাভীর মাংস বিক্রির পায়তারা করেছিলো।

তিনি আরো জানান, জব্দকৃত মাংস মাটিচাপা দিয়ে বিনষ্ট করা হয়েছে। ভবিষ্যতে এই ধরনের অপকর্ম করবে না মর্মে মুচলেকা প্রদান করেন অভিযুক্ত দুই ব্যবসায়ী।

অভিযানে সহযোগিতা করেন মানিকগঞ্জ সদর উপজেলা পাণিসম্পদ কর্মকর্তা ডা. মো: আজিজুর রহমান, , জেলা স্যানিটারি ইন্সপেক্টর মো: আব্দুল হান্নান, সদর উপজেলা স্যানিটারি ইন্সপেক্টর মোশারফ হোসেন, ক্যাবের জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক শামসুন্নবী তুলিপ ও সদর থানা পুলিশের দুইটি টিম।