ঢাকা ০১:২১ অপরাহ্ন, সোমবার, ০৪ মার্চ ২০২৪, ২১ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
ঝালকাঠিতে বিদ্যালয়ে বঙ্গবন্ধুর ছবি টানাতে প্রধান শিক্ষকের টালবাহনা

ঝালকাঠিতে বিদ্যালয়ে বঙ্গবন্ধুর ছবি টানাতে প্রধান শিক্ষকের টালবাহনা

ঝালকাঠির রাজাপুর উপজেলার ১৫ নং শুক্তাগড় সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে অফিস কক্ষে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ছবি না টানিয়ে পুরাতন ভবনে ফেলে রাখার অভিযোগ উঠেছে।

 

এ ঘটনায় স্থানীয় জনপ্রতিনিধি,শিক্ষার্থীদের অভিবাবক সহ সাধারণ জনগণের মাঝে ক্ষোভ বিরাজ করছে। সোমবার সকালে সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায় ওই বিদ্যালয়ের অফিস কক্ষের কোথাও জাতির জনক বঙ্গবন্ধু ও প্রধানমন্ত্রীর ছবি টানানো নেই।

এ বিষয়ে বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের অভিভাবক ও স্থানীয়রা জানান, বিদ্যালয়ের নতুন ভবনে দুই মাসেরও বেশি সময় যাবৎ শিক্ষা কার্যক্রম চলমান থাকলেও প্রতিষ্ঠানের অফিস কক্ষ সহ কোথাও জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও প্রধানমন্ত্রীর ছবি টানায়নি বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. হুমায়ুন কবির।

বিদ্যালয়ের শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা জানান, দুই মাসেরও বেশি সময় ধরে নতুন ভবনে শিক্ষা কার্যক্রম পরিচালনা করা হচ্ছে।

সাংবাদিকদের উপস্থিতি জানতে পেরে প্রধান শিক্ষক ড্রিল মেশিন নিয়ে বিদ্যালয়ের অফিস কক্ষে হাজির হয় জাতির জনক বঙ্গবন্ধু ও প্রধানমন্ত্রীর ছবি টানানোর জন্য।

এ বিষয়ে বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. হুমায়ুন কবির দুঃখ প্রকাশ করে বলেন, এতদিন ড্রিল মেশিন না পাওয়ার কারনে বঙ্গবন্ধু ও প্রধানমন্ত্রীর ছবি সহ অন্যন্য ছবি লাগাতে পারিনি। আমার ভুল হইছে এ জন্য আমি দুঃখ প্রকাশ করছি।

উপজেলা শিক্ষা অফিসার মোঃ মনিবুর রহমান জানান, বিষয়টি খুবই দুঃখ জনক। এ বিষয়ে লিখিত অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

জনপ্রিয় সংবাদ

সালথায় কৃষককে কুপিয়ে হত্যায় পাঁচ জনের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড

ঝালকাঠিতে বিদ্যালয়ে বঙ্গবন্ধুর ছবি টানাতে প্রধান শিক্ষকের টালবাহনা

ঝালকাঠিতে বিদ্যালয়ে বঙ্গবন্ধুর ছবি টানাতে প্রধান শিক্ষকের টালবাহনা

আপডেট সময় ০৩:৪৯:০৭ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২

ঝালকাঠির রাজাপুর উপজেলার ১৫ নং শুক্তাগড় সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে অফিস কক্ষে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ছবি না টানিয়ে পুরাতন ভবনে ফেলে রাখার অভিযোগ উঠেছে।

 

এ ঘটনায় স্থানীয় জনপ্রতিনিধি,শিক্ষার্থীদের অভিবাবক সহ সাধারণ জনগণের মাঝে ক্ষোভ বিরাজ করছে। সোমবার সকালে সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায় ওই বিদ্যালয়ের অফিস কক্ষের কোথাও জাতির জনক বঙ্গবন্ধু ও প্রধানমন্ত্রীর ছবি টানানো নেই।

এ বিষয়ে বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের অভিভাবক ও স্থানীয়রা জানান, বিদ্যালয়ের নতুন ভবনে দুই মাসেরও বেশি সময় যাবৎ শিক্ষা কার্যক্রম চলমান থাকলেও প্রতিষ্ঠানের অফিস কক্ষ সহ কোথাও জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও প্রধানমন্ত্রীর ছবি টানায়নি বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. হুমায়ুন কবির।

বিদ্যালয়ের শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা জানান, দুই মাসেরও বেশি সময় ধরে নতুন ভবনে শিক্ষা কার্যক্রম পরিচালনা করা হচ্ছে।

সাংবাদিকদের উপস্থিতি জানতে পেরে প্রধান শিক্ষক ড্রিল মেশিন নিয়ে বিদ্যালয়ের অফিস কক্ষে হাজির হয় জাতির জনক বঙ্গবন্ধু ও প্রধানমন্ত্রীর ছবি টানানোর জন্য।

এ বিষয়ে বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. হুমায়ুন কবির দুঃখ প্রকাশ করে বলেন, এতদিন ড্রিল মেশিন না পাওয়ার কারনে বঙ্গবন্ধু ও প্রধানমন্ত্রীর ছবি সহ অন্যন্য ছবি লাগাতে পারিনি। আমার ভুল হইছে এ জন্য আমি দুঃখ প্রকাশ করছি।

উপজেলা শিক্ষা অফিসার মোঃ মনিবুর রহমান জানান, বিষয়টি খুবই দুঃখ জনক। এ বিষয়ে লিখিত অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।