ঢাকা ১২:৩১ অপরাহ্ন, শনিবার, ১০ ডিসেম্বর ২০২২, ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
এইমাত্র প্রাপ্ত ::
Logo রাজবাড়ী জেলা সমিতি, ঢাকার উদ্যোগে দিনব্যাপী আয়োজিত হতে যাচ্ছে রাজবাড়ী উৎসব। Logo কাতারের নিরাপত্তা ব্যবস্থাতে আমরা অভিভূত Logo ঝালকাঠির রাজাপুরে নও মুসলিম গৃহবধুর উপর হামলা Logo ঝালকাঠিতে ঘূর্ণিঝড় সিত্রাং-এ ক্ষতিগ্রস্ত বিদ্যালয়ে নতুন ভবন নির্মানের দাবিতে শিক্ষার্থীদের মানববন্ধন Logo অনুষ্ঠিত হলো ঢাকাস্থ রাজবাড়ী জেলা সাংবাদিক ফোরামের নির্বাহী পরিষদের প্রথম বৈঠক। Logo সালথার সোনাপুর ইউনিয়ন কৃষকলীগের আংশিক কমিটি গঠন ‘সভাপতি শাহজাহান, সম্পাদক আমির’ Logo ঝালকাঠিতে গাছ কাটাকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষে নারী সহ আহত ১১ Logo রুপাপাত বামন চন্দ্র উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষককে সাময়িক বরখাস্ত Logo সালথায় সন্তানদের হাতে পিতা নিহত: আটক-৪ Logo প্রেমিকের সাথে অভিমানে কলেজ ছাত্রীর আত্মহত্যা
ঝালকাঠিতে বঙ্গবন্ধুর ছবি সম্বলিত পোস্টার ছিড়ে ফেলার অভিযোগ! এলাকায় ব্যাপক উত্তেজনা

ঝালকাঠিতে বঙ্গবন্ধুর ছবি সম্বলিত পোস্টার ছিড়ে ফেলার অভিযোগ! এলাকায় ব্যাপক উত্তেজনা

ঝালকাঠির রাজাপুর উপজেলার শুক্তাগড় ইউনিয়নের কেওতা ঘিগড়া বাজার এলাকায় জাতীয় শোক দিবসের জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ছবি সম্বলিত পোস্টার ছিড়ে ফেলেছে দূর্বিত্তরা। গত সোমবার দুপুরে স্থানীয়দের নজরে আসলে বিষয়টি নিয়ে এলাকায় ব্যাপক তোলপাড় শুরু হয়।

মঙ্গলবার বিকেলে সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, বাজারের দোকান সহ বিভিন্ন জায়গায় লাগানো শোকাবহ আগষ্ট ও ১৫ আগষ্ট সকল শহীদের প্রতি শ্রদ্ধাঞ্জলি লেখা এবং বঙ্গবন্ধু ও বঙ্গমাতা সহ শহীদদের ছবি সম্বলিত পোস্টার গুলো ছিড়ে প্রায় আধা কিলোমিটার দূরে রাস্তার পাশে টুকরো টুকরো করে ফেলে রাখা হয়েছে। এ সময় স্থানীয় সংবাদকর্মীদের ওসমান ফরাজী, সাখাওয়াত, মিজান ও বেল্লাল সহ স্থানীয়রা ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, জাতির পিতার ছবি এমনভাবে কারা ছিড়েছে বা এমন দুরসাহস কে দেখিয়েছে আমাদের জানা নাই। তবে যে বা যাহারাই এ ঘটনা ঘটিয়েছে তাদেরকে চিহ্নিত করে দ্রুত আইনের আওতায় এনে শাস্তির দাবী করেন স্থানীয়রা।

এ বিষয়ে ইউনিয়ন আ.লীগের সাধারণ সম্পাদক শাহজাহান খান জানান, “ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে আমাদের দাবী জাতির পিতার ছবি সম্বলিত শোক দিবসের পোস্টার যাহারা ছিড়েছে তাদের শনাক্ত করে দ্রুত আইনের আওতায় আনা হোক।”

উপজেলা আ.লীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা এ্যাড. এএইচএম খায়রুল আলম সরফরাজ জানান, “শোকের মাস আসলেই আমরা আতঙ্কের মধ্যে থাকি। বিএনপির সন্ত্রাসীরা ও বঙ্গবন্ধুর খুনিরা এই মাসে তৎপর হয়ে ওঠে কোনো না কোনো ঘটনা ঘটায়। ২ নং শুক্তাগড় ইউনিয়নের কেওতা এলাকায় জাতীয় শোক দিবসের জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ছবি সম্বলিত লাগানো পোস্টার গুলো ছিড়ে ফেলেছে সন্ত্রাসীরা। বিএনপির কিছু নেতারা ছাড়া এই কাজ অন্য কেউ করতে পারেনা। তিনি রাজাপুর থানা পুলিশকে অচিরেই এমন ন্যাক্কার জনক ঘটনায় জড়িতদের খুঁজে বের করে আইনের আওয়ায় আনার আহব্বান জানান এবং এমন ঘটনার তিব্র নিন্দা জানান।”

সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার (রাজাপুর সার্কেল) মো. মাসুদ রানা জানান, “এ বিষয়ে কোন লিখিত অভিযোগ পাইনি, তবে এ রকমের একটা কথা শোনা গেছে তবে তার সত্যতা যাছাই করে আইনগত ব্যাবস্থা গ্রহন করা হবে।”

মাদক দিয়ে ফাঁসাতে ব্যর্থ হয়ে দুই কলেজছাত্র পেটালেন ২ পুলিশ সদস্য

ঝালকাঠিতে বঙ্গবন্ধুর ছবি সম্বলিত পোস্টার ছিড়ে ফেলার অভিযোগ! এলাকায় ব্যাপক উত্তেজনা

ঝালকাঠিতে বঙ্গবন্ধুর ছবি সম্বলিত পোস্টার ছিড়ে ফেলার অভিযোগ! এলাকায় ব্যাপক উত্তেজনা

আপডেট সময় ০৪:১৮:২৭ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৪ অগাস্ট ২০২২

ঝালকাঠির রাজাপুর উপজেলার শুক্তাগড় ইউনিয়নের কেওতা ঘিগড়া বাজার এলাকায় জাতীয় শোক দিবসের জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ছবি সম্বলিত পোস্টার ছিড়ে ফেলেছে দূর্বিত্তরা। গত সোমবার দুপুরে স্থানীয়দের নজরে আসলে বিষয়টি নিয়ে এলাকায় ব্যাপক তোলপাড় শুরু হয়।

মঙ্গলবার বিকেলে সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, বাজারের দোকান সহ বিভিন্ন জায়গায় লাগানো শোকাবহ আগষ্ট ও ১৫ আগষ্ট সকল শহীদের প্রতি শ্রদ্ধাঞ্জলি লেখা এবং বঙ্গবন্ধু ও বঙ্গমাতা সহ শহীদদের ছবি সম্বলিত পোস্টার গুলো ছিড়ে প্রায় আধা কিলোমিটার দূরে রাস্তার পাশে টুকরো টুকরো করে ফেলে রাখা হয়েছে। এ সময় স্থানীয় সংবাদকর্মীদের ওসমান ফরাজী, সাখাওয়াত, মিজান ও বেল্লাল সহ স্থানীয়রা ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, জাতির পিতার ছবি এমনভাবে কারা ছিড়েছে বা এমন দুরসাহস কে দেখিয়েছে আমাদের জানা নাই। তবে যে বা যাহারাই এ ঘটনা ঘটিয়েছে তাদেরকে চিহ্নিত করে দ্রুত আইনের আওতায় এনে শাস্তির দাবী করেন স্থানীয়রা।

এ বিষয়ে ইউনিয়ন আ.লীগের সাধারণ সম্পাদক শাহজাহান খান জানান, “ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে আমাদের দাবী জাতির পিতার ছবি সম্বলিত শোক দিবসের পোস্টার যাহারা ছিড়েছে তাদের শনাক্ত করে দ্রুত আইনের আওতায় আনা হোক।”

উপজেলা আ.লীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা এ্যাড. এএইচএম খায়রুল আলম সরফরাজ জানান, “শোকের মাস আসলেই আমরা আতঙ্কের মধ্যে থাকি। বিএনপির সন্ত্রাসীরা ও বঙ্গবন্ধুর খুনিরা এই মাসে তৎপর হয়ে ওঠে কোনো না কোনো ঘটনা ঘটায়। ২ নং শুক্তাগড় ইউনিয়নের কেওতা এলাকায় জাতীয় শোক দিবসের জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ছবি সম্বলিত লাগানো পোস্টার গুলো ছিড়ে ফেলেছে সন্ত্রাসীরা। বিএনপির কিছু নেতারা ছাড়া এই কাজ অন্য কেউ করতে পারেনা। তিনি রাজাপুর থানা পুলিশকে অচিরেই এমন ন্যাক্কার জনক ঘটনায় জড়িতদের খুঁজে বের করে আইনের আওয়ায় আনার আহব্বান জানান এবং এমন ঘটনার তিব্র নিন্দা জানান।”

সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার (রাজাপুর সার্কেল) মো. মাসুদ রানা জানান, “এ বিষয়ে কোন লিখিত অভিযোগ পাইনি, তবে এ রকমের একটা কথা শোনা গেছে তবে তার সত্যতা যাছাই করে আইনগত ব্যাবস্থা গ্রহন করা হবে।”