ঢাকা ১১:২৫ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১০ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

রাজবাড়ী সার্কেল সহ একাধিক প্রত্রিকায় সংবাদ প্রকাশের জেরে,পদ্মায় অবৈধ বালু উত্তোলনের বিরুদ্ধে নৌপুলিশ অভিযান, আটক-২

  • নিজস্ব সংবাদ :
  • আপডেট সময় ০৮:২১:৩৯ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২৪ নভেম্বর ২০২৩
  • ২৯ বার পড়া হয়েছে

রাজবাড়ী প্রতিনিধি, পদ্মা নদীতে অবৈধ বালু উত্তোলন এর বিরুদ্ধে একাধিক জাতীয় গণমাধ্যমে সংবাদ প্রকাশিত হওয়ার পর,নড়েচড়ে বসেছে নৌপুলিশ বাহিনীর সদস্যরা। তারইধারাবাহিকতায়, উচ্চ আদালতের রায়’কে অমাণ্য করে পদ্মানদীতে অবৈধ ভাবে কোটি কোটি টাকার বালু উত্তোলন’কারীদের বিরুদ্ধে অভিযানে নামে নৌপুলিশের রাজশাহী অঞ্চলের পুলিশ সুপার রুহুল কবীর খান এর নেতৃত্বে একটি চৌকস টিম।

শুক্রবার ২৪শে নভেম্বর সকাল ৬টা হইতে দুপুর পর্যন্ত চলা এ অভিযানে বালু উত্তোলন করার কাজে ব্যবহৃত একটি বড় কাঁটার মেশিন জব্দ সহ দুইজন’কে আটক করে নৌপুলিশ।

আসামীরা হলোঃ-কুষ্টিয়া জেলার মিরপুর থানার রানাখড়িয়া গ্রামের মৃত-শুকুর আলি শেখের ছেলে আসাদুল আলি সেখ (৫২)’ ও তার ছেলে আশিক সেখ (২২)।

এসময় উপস্থিত ছিলেন- রুহুল কবীর খান,পুলিশ সুপার রাজশাহী অঞ্চল,মোঃ সাইদুর রহমান, ওসি নাজিরগঞ্জ নৌপুলিশ ফাঁড়ি, মোঃ ইমদাদুল হক,ওসি লক্ষিগন্ডা নৌপুলিশ ফাঁড়ি সহ একাধিক অফিসার ও ফোর্স বৃন্দ সহ গণমাধ্যম কর্মীরা।

উল্লেখ্য,এর আগে মহামান্য হাইকোর্ট রাজবাড়ী জেলার দৌলতদিয়া ফেরীঘাট হতে পাবনার পাকঁশি পর্যন্ত পদ্মা নদীতে বালু উত্তোলন, পরিবহন ও বালুবাহী ভাল্বগেট চলাচলের উপর নিষেধাজ্ঞা জারী করে। কিন্তু সেই নিষেধাজ্ঞা অমান্য একটি প্রভাবশালী মহল দীর্ঘদিন যাবত প্রকাশ্যে কোটি কোটি টাকার বালু উত্তোলন করে বিক্রি করে যাচ্ছিলো। এতে একদিকে কোটি টাকা রাজস্ব হারাচ্ছিলো সরকার অন্যদিকে ভাঙ্গান ঝুঁকিতে পড়েছে রাজবাড়ী, পাবনা সহ একাধিক জেলার হাজারো পরিবার।

এবিষয়ে নাজিরগঞ্জ নৌপুলিশ ফাঁড়ি ওসি মোঃ সাইদুর রহমান জানান,পদ্মানদীতে অবৈধ বালু উত্তোলন করার কোন সুযোগ নাই। একটি চক্র রাতের অন্ধকারে এ কাজটি করছিলো এমন সংবাদের ভিত্তিতে অভিযান পরিচালনা করে বালু উত্তোলন কাটার মেশিন ও দুইজন আটক করা হয়। পরে আসামীদের বিরুদ্ধে নিয়মিত মামলা রুজু করে আদালত প্রেরন করা হয়েছে।

মোঃ সুজন খন্দকার
রাজবাড়ী প্রতিনিধি।

জনপ্রিয় সংবাদ

দাঁড়ি বড় রাখায় যুবককে পেটালেন ইউপি চেয়ারম্যান ও তার ছেলে!

রাজবাড়ী সার্কেল সহ একাধিক প্রত্রিকায় সংবাদ প্রকাশের জেরে,পদ্মায় অবৈধ বালু উত্তোলনের বিরুদ্ধে নৌপুলিশ অভিযান, আটক-২

আপডেট সময় ০৮:২১:৩৯ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২৪ নভেম্বর ২০২৩

রাজবাড়ী প্রতিনিধি, পদ্মা নদীতে অবৈধ বালু উত্তোলন এর বিরুদ্ধে একাধিক জাতীয় গণমাধ্যমে সংবাদ প্রকাশিত হওয়ার পর,নড়েচড়ে বসেছে নৌপুলিশ বাহিনীর সদস্যরা। তারইধারাবাহিকতায়, উচ্চ আদালতের রায়’কে অমাণ্য করে পদ্মানদীতে অবৈধ ভাবে কোটি কোটি টাকার বালু উত্তোলন’কারীদের বিরুদ্ধে অভিযানে নামে নৌপুলিশের রাজশাহী অঞ্চলের পুলিশ সুপার রুহুল কবীর খান এর নেতৃত্বে একটি চৌকস টিম।

শুক্রবার ২৪শে নভেম্বর সকাল ৬টা হইতে দুপুর পর্যন্ত চলা এ অভিযানে বালু উত্তোলন করার কাজে ব্যবহৃত একটি বড় কাঁটার মেশিন জব্দ সহ দুইজন’কে আটক করে নৌপুলিশ।

আসামীরা হলোঃ-কুষ্টিয়া জেলার মিরপুর থানার রানাখড়িয়া গ্রামের মৃত-শুকুর আলি শেখের ছেলে আসাদুল আলি সেখ (৫২)’ ও তার ছেলে আশিক সেখ (২২)।

এসময় উপস্থিত ছিলেন- রুহুল কবীর খান,পুলিশ সুপার রাজশাহী অঞ্চল,মোঃ সাইদুর রহমান, ওসি নাজিরগঞ্জ নৌপুলিশ ফাঁড়ি, মোঃ ইমদাদুল হক,ওসি লক্ষিগন্ডা নৌপুলিশ ফাঁড়ি সহ একাধিক অফিসার ও ফোর্স বৃন্দ সহ গণমাধ্যম কর্মীরা।

উল্লেখ্য,এর আগে মহামান্য হাইকোর্ট রাজবাড়ী জেলার দৌলতদিয়া ফেরীঘাট হতে পাবনার পাকঁশি পর্যন্ত পদ্মা নদীতে বালু উত্তোলন, পরিবহন ও বালুবাহী ভাল্বগেট চলাচলের উপর নিষেধাজ্ঞা জারী করে। কিন্তু সেই নিষেধাজ্ঞা অমান্য একটি প্রভাবশালী মহল দীর্ঘদিন যাবত প্রকাশ্যে কোটি কোটি টাকার বালু উত্তোলন করে বিক্রি করে যাচ্ছিলো। এতে একদিকে কোটি টাকা রাজস্ব হারাচ্ছিলো সরকার অন্যদিকে ভাঙ্গান ঝুঁকিতে পড়েছে রাজবাড়ী, পাবনা সহ একাধিক জেলার হাজারো পরিবার।

এবিষয়ে নাজিরগঞ্জ নৌপুলিশ ফাঁড়ি ওসি মোঃ সাইদুর রহমান জানান,পদ্মানদীতে অবৈধ বালু উত্তোলন করার কোন সুযোগ নাই। একটি চক্র রাতের অন্ধকারে এ কাজটি করছিলো এমন সংবাদের ভিত্তিতে অভিযান পরিচালনা করে বালু উত্তোলন কাটার মেশিন ও দুইজন আটক করা হয়। পরে আসামীদের বিরুদ্ধে নিয়মিত মামলা রুজু করে আদালত প্রেরন করা হয়েছে।

মোঃ সুজন খন্দকার
রাজবাড়ী প্রতিনিধি।