ঢাকা ১০:২৮ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১১ এপ্রিল ২০২৪, ২৮ চৈত্র ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

শেখ হাসিনাকে ক্ষমতায় আনার জন্য কৃষক লীগকে মাঠে থাকতে হবে- নূরে আলম সিদ্দিকী হক

  • নিজস্ব সংবাদ :
  • আপডেট সময় ০৬:১১:৫২ অপরাহ্ন, শনিবার, ২১ অক্টোবর ২০২৩
  • ৪৫ বার পড়া হয়েছে

জেলা প্রতিনিধি,রাজবাড়ী, কৃষক লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক নূরে আলম সিদ্দিকী হক বলেন, আগামী দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন শেখ হাসিনাকে ক্ষমতায় আনার জন্য কৃষক লীগকে মাঠে থাকতে হবে।ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে কাজ করতে হবে।দলের মধ্যে অনেকেই বিভেদ তৈরি করার চেষ্টা করবে।কিন্তু তাদেরকে পাত্তা দেওয়া যাবে না।সামনের নির্বাচনে জননেত্রী শেখ হাসিনাকে ক্ষমতায় আনার জন্য মাঠে থাকার কোন বিকল্প নেই।

শনিবার(২১ অক্টোবর) সকালে জেলা শিল্পকলা একাডেমির মিলনায়তনে রাজবাড়ী জেলা কৃষক লীগের বর্ধিত সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

নূরে আলম সিদ্দিকী হক বলেন, রাজবাড়ী ১ আসনে শেখ হাসিনার আস্থাভাজন কাজী কেরামত আলীর জন্য আমরা কাজ করবো। কাজী কেরামত আলীর বিকল্প রাজবাড়ী-১ আসনে কেউ নেই।রাজবাড়ীতে আওয়ামী লীগকে সুসংগঠিত করতে কাজী পরিবারের দুই ছেলে কাজী কেরামত আলী ও কাজী ইরাদত আলীর বিকল্প কেউ নেই। কাজী ইরাদত আলী যেমন দলকে সংগঠতি করছে, তেমনি তার বড় ভাই কাজী কেরামত আলী জনপ্রতিনিধি হয়ে রাজবাড়ী বাসির জন্য কাজ করছে।অনেক নেতাই এই দুই ভাইয়ের মধ্যে দূরত্ব তৈরি করার জন্য ভূমিকা পালন করে।আমি তাদেরকে বলতে চাই আপনারা আপনাদের নিজেদের স্বার্থ হাসিলের জন্য কাজী পরিবারের দুই ভাইয়ের মধ্যে দুরত্ব তৈরি করবেন না। সামনে নির্বাচন, সকল ভেদাভেদ ভুলে কাজ করতে হবে।শেখ হাসিনা যাকেই মনোনয়ন দেন তার পক্ষেই আমরা কাজ করবো।রাজবাড়ী দুইটি আসনই আমরা জননেত্রী শেখ হাসিনাকে উপহার দিবো।

জেলা কৃষক লীগের সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটির আহ্বায়ক আবু বককার খানের সভাপতিত্বে এবং যুগ্ম-আহ্বায়ক বিপ্লব মুক্ত বিশ্বাসের সঞ্চালনায় বর্ধিত সভার উদ্বোধন করেন কৃষক লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সিনিয়র সহ-সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা শরীফ আশরাফ আলী।

বর্ধিত সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি ও রাজবাড়ী-১ আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ্ব কাজী কেরামত আলী ও বিশেষ অতিথি হিসেবে কৃষক লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক হিজবুল বাহার রানা,কেন্দ্রীয় কৃষক লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক নুরুল ইসলাম বাদশা,পানি,সেচ ও বিদ্যুৎ বিষয়য়ক সম্পাদক আঃরাশেদ খান,কৃষক লীগের জাতীয় কমিটির সদস্য মো.সোয়েব আকন,এ্যাড.মো.মোবাশ্বের হোসেনসহ আরও বক্তব্য রাখেন কৃষক লীগের বিভিন্ন ইউনিটের নেতৃবৃন্দ।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে রাজবাড়ী ১ আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ্ব কাজী কেরামত আলী বলেন,কৃষক লীগ আওয়ামী লীগের একটি সহযোগী সংগঠন।আগামী দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে শেখ হাসিনাকে আবার ক্ষমতায় আনার জন্য কৃষক লীগকে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করতে হবে।
কৃষক লীগ করতে হলে পদ-পদবী নিয়ে বসে থাকলে চলবে না, কৃষকদের কাছে যেতে হবে।সাংগঠনিক কাজ করতে হবে।সামনে নির্বাচন,তাই নিজেদের মধ্যে গ্রুপিং না করে শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করতে হবে।শেখ হাসিনা ক্ষমতায় না আসলে দলের কেউ ভালো থাকতে পারবে না,জনগণ ও ভালো থাকতে পারবে না।তাই শেখ হাসিনাকে পুনরায় ক্ষমতায় আনার জন্য আমাদেরকে নির্বাচন পর্যন্ত মাঠে থাকতে হবে।

 

বর্ধিত সভার শেষে রাজবাড়ী পৌর কৃষক লীগ ও গোয়ালন্দের পৌর কৃষক লীগের কমিটি মেয়াদোত্তীর্ণ হওয়ায় তা বিলুপ্ত ঘোষণা করা হয়। এবং গোয়ালন্দ উপজেলা কৃষক লীগের সভাপতি মো.হাবিবুর রহমান হাবিবকে সংগঠন বিরোধী কাজের জন্য সাময়িক ভাবে অব্যাহতি দেওয়ায় দলের সিনিয়র সহ-সভাপতি আবুল হোসেন প্রামাণিকলে দলের ভারপ্রাপ্ত সভাপতির দায়িত্ব দেওয়া হয়।

 

মীর সৌরভ/রাজবাড়ী প্রতিনিধি।

সালথা প্রেসক্লাবের আয়োজনে ইফতার ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত

শেখ হাসিনাকে ক্ষমতায় আনার জন্য কৃষক লীগকে মাঠে থাকতে হবে- নূরে আলম সিদ্দিকী হক

আপডেট সময় ০৬:১১:৫২ অপরাহ্ন, শনিবার, ২১ অক্টোবর ২০২৩

জেলা প্রতিনিধি,রাজবাড়ী, কৃষক লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক নূরে আলম সিদ্দিকী হক বলেন, আগামী দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন শেখ হাসিনাকে ক্ষমতায় আনার জন্য কৃষক লীগকে মাঠে থাকতে হবে।ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে কাজ করতে হবে।দলের মধ্যে অনেকেই বিভেদ তৈরি করার চেষ্টা করবে।কিন্তু তাদেরকে পাত্তা দেওয়া যাবে না।সামনের নির্বাচনে জননেত্রী শেখ হাসিনাকে ক্ষমতায় আনার জন্য মাঠে থাকার কোন বিকল্প নেই।

শনিবার(২১ অক্টোবর) সকালে জেলা শিল্পকলা একাডেমির মিলনায়তনে রাজবাড়ী জেলা কৃষক লীগের বর্ধিত সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

নূরে আলম সিদ্দিকী হক বলেন, রাজবাড়ী ১ আসনে শেখ হাসিনার আস্থাভাজন কাজী কেরামত আলীর জন্য আমরা কাজ করবো। কাজী কেরামত আলীর বিকল্প রাজবাড়ী-১ আসনে কেউ নেই।রাজবাড়ীতে আওয়ামী লীগকে সুসংগঠিত করতে কাজী পরিবারের দুই ছেলে কাজী কেরামত আলী ও কাজী ইরাদত আলীর বিকল্প কেউ নেই। কাজী ইরাদত আলী যেমন দলকে সংগঠতি করছে, তেমনি তার বড় ভাই কাজী কেরামত আলী জনপ্রতিনিধি হয়ে রাজবাড়ী বাসির জন্য কাজ করছে।অনেক নেতাই এই দুই ভাইয়ের মধ্যে দূরত্ব তৈরি করার জন্য ভূমিকা পালন করে।আমি তাদেরকে বলতে চাই আপনারা আপনাদের নিজেদের স্বার্থ হাসিলের জন্য কাজী পরিবারের দুই ভাইয়ের মধ্যে দুরত্ব তৈরি করবেন না। সামনে নির্বাচন, সকল ভেদাভেদ ভুলে কাজ করতে হবে।শেখ হাসিনা যাকেই মনোনয়ন দেন তার পক্ষেই আমরা কাজ করবো।রাজবাড়ী দুইটি আসনই আমরা জননেত্রী শেখ হাসিনাকে উপহার দিবো।

জেলা কৃষক লীগের সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটির আহ্বায়ক আবু বককার খানের সভাপতিত্বে এবং যুগ্ম-আহ্বায়ক বিপ্লব মুক্ত বিশ্বাসের সঞ্চালনায় বর্ধিত সভার উদ্বোধন করেন কৃষক লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সিনিয়র সহ-সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা শরীফ আশরাফ আলী।

বর্ধিত সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি ও রাজবাড়ী-১ আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ্ব কাজী কেরামত আলী ও বিশেষ অতিথি হিসেবে কৃষক লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক হিজবুল বাহার রানা,কেন্দ্রীয় কৃষক লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক নুরুল ইসলাম বাদশা,পানি,সেচ ও বিদ্যুৎ বিষয়য়ক সম্পাদক আঃরাশেদ খান,কৃষক লীগের জাতীয় কমিটির সদস্য মো.সোয়েব আকন,এ্যাড.মো.মোবাশ্বের হোসেনসহ আরও বক্তব্য রাখেন কৃষক লীগের বিভিন্ন ইউনিটের নেতৃবৃন্দ।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে রাজবাড়ী ১ আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ্ব কাজী কেরামত আলী বলেন,কৃষক লীগ আওয়ামী লীগের একটি সহযোগী সংগঠন।আগামী দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে শেখ হাসিনাকে আবার ক্ষমতায় আনার জন্য কৃষক লীগকে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করতে হবে।
কৃষক লীগ করতে হলে পদ-পদবী নিয়ে বসে থাকলে চলবে না, কৃষকদের কাছে যেতে হবে।সাংগঠনিক কাজ করতে হবে।সামনে নির্বাচন,তাই নিজেদের মধ্যে গ্রুপিং না করে শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করতে হবে।শেখ হাসিনা ক্ষমতায় না আসলে দলের কেউ ভালো থাকতে পারবে না,জনগণ ও ভালো থাকতে পারবে না।তাই শেখ হাসিনাকে পুনরায় ক্ষমতায় আনার জন্য আমাদেরকে নির্বাচন পর্যন্ত মাঠে থাকতে হবে।

 

বর্ধিত সভার শেষে রাজবাড়ী পৌর কৃষক লীগ ও গোয়ালন্দের পৌর কৃষক লীগের কমিটি মেয়াদোত্তীর্ণ হওয়ায় তা বিলুপ্ত ঘোষণা করা হয়। এবং গোয়ালন্দ উপজেলা কৃষক লীগের সভাপতি মো.হাবিবুর রহমান হাবিবকে সংগঠন বিরোধী কাজের জন্য সাময়িক ভাবে অব্যাহতি দেওয়ায় দলের সিনিয়র সহ-সভাপতি আবুল হোসেন প্রামাণিকলে দলের ভারপ্রাপ্ত সভাপতির দায়িত্ব দেওয়া হয়।

 

মীর সৌরভ/রাজবাড়ী প্রতিনিধি।