ঢাকা ০৫:১১ অপরাহ্ন, সোমবার, ০৮ এপ্রিল ২০২৪, ২৫ চৈত্র ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

ধুঞ্চি পূর্বপাড়া সার্বজনীন দুর্গা মন্দিরে ১০৮টি প্রতিমা নিয়ে দুর্গাপূজা

  • নিজস্ব সংবাদ :
  • আপডেট সময় ০৬:১৬:৩৮ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৭ অক্টোবর ২০২৩
  • ৩৭ বার পড়া হয়েছে

সুজন বিষ্ণুঃ সনাতন ধর্মাবলম্বীদের সবচেয়ে বড় উৎসব শারদীয় দূর্গা উৎসব। ষষ্ঠী থেকে দশমী শারদীয় দূর্গা উৎসবের এই পাঁচটি দিনে ধনী দরিদ্র সবাই মেতে ওঠেন।

এবছর রাজবাড়ীতে মোট ৪৪২ টি মণ্ডপে দুর্গাপূজা অনুষ্ঠিত হবে। তবে সদর উপজেলার ধুঞ্চি পূর্বপাড়া সার্বজনীন দুর্গা মন্দিরে ১০৮টি প্রতিমা নিয়ে দুর্গাপূজার আয়োজন করা হয়েছে। মূলত সনাতন ধর্মের বিভিন্ন কাহিনী অবলম্বনে ও ১০৮ খণ্ডে বাঙালি হিন্দুদের অন্যতম শারদীয় দুর্গোৎসব এখানে অনুষ্ঠিত হবে। প্রতিমা গুলোর মধ্যে আছে – চার যুগের দেবদেবী, রামায়ণের বিশেষ দৃশ্যপট, মহাভারতের যুদ্ধের বিশেষ প্রতিচ্ছবি, স্বর্গ ও নরকের বিশেষ প্রতিচ্ছবি, ভগবান শ্রীকৃষ্ণ ও রাধা এর সখিদের সঙ্গে লীলার ঘূণায়মান দৃশ্য।

পূজাকে সামনে রেখে রাজবাড়ীর মন্ডপে মন্ডপে চলছে প্রতিমা তৈরির কাজ। দিনরাত কাজ করে শিল্পীদের হাতের নিপুন ছোয়ায় তৈরি হচ্ছে প্রতিমা। দম ফেলার সময় নেই কারিগরদের। পূজার দিন যতই ঘনিয়ে আসছে ততই যেন ব্যস্ত হয়ে পড়ছে প্রতিমা তৈরীর শিল্পীরা।

আগামী ২০ অক্টোবর থেকে ষষ্ঠীর মধ্য দিয়ে শারদীয় দূর্গা উৎসব শুরু হবে এবং ২৪শে অক্টোবর বিজয়াদশমী মধ্য দিয়ে শেষ হবে এই শারদীয় দুর্গোৎসব।

ধুঞ্চি পূর্বপাড়া সার্বজনীন দুর্গা মন্দির কমিটির সভাপতি শ্রীকান্ত খুমার বিশ্বাস (রাহুল) বলেন, এ বছর আমাদের মন্দিরে দূ্র্গা মায়ের পূজার সঙ্গে অতিরিক্ত ১০৮ টি প্রতিমা প্রদর্শনী করা হবে। প্রতিমা গুলোর মধ্যে আছে – চার যুগের দেবদেবী, রামায়ণের বিশেষ দৃশ্যপট, মহাভারতের যুদ্ধের বিশেষ প্রতিচ্ছবি, স্বর্গ ও নরকের বিশেষ প্রতিচ্ছবি, ভগবান শ্রীকৃষ্ণ ও রাধা এর সখিদের সঙ্গে লীলার ঘূণায়মান দৃশ্য। এই আয়োজন সার্বিকভাবে সহযোগিতা ও পরামর্শ দিয়ে আসছেন মন্দির কমিটির প্রধান উপদেষ্টা রাজবাড়ী-১ আসনের সংসদ সদস্য ও সাবেক শিক্ষা প্রতিমন্ত্রী আলহাজ্ব কাজী কেরামত আলী। শারদীয় দূর্গাপূজা ২৪ অক্টোবর শেষ হলেও আমাদের এই মন্দিরে অতিরিক্ত ২দিন প্রতিমা রাখা হবে। ২৭ অক্টোবর শুক্রবার প্রতিমা বিসর্জ্জন দেওয়া হবে।

ট্যাগস :

সালথা প্রেসক্লাবের আয়োজনে ইফতার ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত

ধুঞ্চি পূর্বপাড়া সার্বজনীন দুর্গা মন্দিরে ১০৮টি প্রতিমা নিয়ে দুর্গাপূজা

আপডেট সময় ০৬:১৬:৩৮ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৭ অক্টোবর ২০২৩

সুজন বিষ্ণুঃ সনাতন ধর্মাবলম্বীদের সবচেয়ে বড় উৎসব শারদীয় দূর্গা উৎসব। ষষ্ঠী থেকে দশমী শারদীয় দূর্গা উৎসবের এই পাঁচটি দিনে ধনী দরিদ্র সবাই মেতে ওঠেন।

এবছর রাজবাড়ীতে মোট ৪৪২ টি মণ্ডপে দুর্গাপূজা অনুষ্ঠিত হবে। তবে সদর উপজেলার ধুঞ্চি পূর্বপাড়া সার্বজনীন দুর্গা মন্দিরে ১০৮টি প্রতিমা নিয়ে দুর্গাপূজার আয়োজন করা হয়েছে। মূলত সনাতন ধর্মের বিভিন্ন কাহিনী অবলম্বনে ও ১০৮ খণ্ডে বাঙালি হিন্দুদের অন্যতম শারদীয় দুর্গোৎসব এখানে অনুষ্ঠিত হবে। প্রতিমা গুলোর মধ্যে আছে – চার যুগের দেবদেবী, রামায়ণের বিশেষ দৃশ্যপট, মহাভারতের যুদ্ধের বিশেষ প্রতিচ্ছবি, স্বর্গ ও নরকের বিশেষ প্রতিচ্ছবি, ভগবান শ্রীকৃষ্ণ ও রাধা এর সখিদের সঙ্গে লীলার ঘূণায়মান দৃশ্য।

পূজাকে সামনে রেখে রাজবাড়ীর মন্ডপে মন্ডপে চলছে প্রতিমা তৈরির কাজ। দিনরাত কাজ করে শিল্পীদের হাতের নিপুন ছোয়ায় তৈরি হচ্ছে প্রতিমা। দম ফেলার সময় নেই কারিগরদের। পূজার দিন যতই ঘনিয়ে আসছে ততই যেন ব্যস্ত হয়ে পড়ছে প্রতিমা তৈরীর শিল্পীরা।

আগামী ২০ অক্টোবর থেকে ষষ্ঠীর মধ্য দিয়ে শারদীয় দূর্গা উৎসব শুরু হবে এবং ২৪শে অক্টোবর বিজয়াদশমী মধ্য দিয়ে শেষ হবে এই শারদীয় দুর্গোৎসব।

ধুঞ্চি পূর্বপাড়া সার্বজনীন দুর্গা মন্দির কমিটির সভাপতি শ্রীকান্ত খুমার বিশ্বাস (রাহুল) বলেন, এ বছর আমাদের মন্দিরে দূ্র্গা মায়ের পূজার সঙ্গে অতিরিক্ত ১০৮ টি প্রতিমা প্রদর্শনী করা হবে। প্রতিমা গুলোর মধ্যে আছে – চার যুগের দেবদেবী, রামায়ণের বিশেষ দৃশ্যপট, মহাভারতের যুদ্ধের বিশেষ প্রতিচ্ছবি, স্বর্গ ও নরকের বিশেষ প্রতিচ্ছবি, ভগবান শ্রীকৃষ্ণ ও রাধা এর সখিদের সঙ্গে লীলার ঘূণায়মান দৃশ্য। এই আয়োজন সার্বিকভাবে সহযোগিতা ও পরামর্শ দিয়ে আসছেন মন্দির কমিটির প্রধান উপদেষ্টা রাজবাড়ী-১ আসনের সংসদ সদস্য ও সাবেক শিক্ষা প্রতিমন্ত্রী আলহাজ্ব কাজী কেরামত আলী। শারদীয় দূর্গাপূজা ২৪ অক্টোবর শেষ হলেও আমাদের এই মন্দিরে অতিরিক্ত ২দিন প্রতিমা রাখা হবে। ২৭ অক্টোবর শুক্রবার প্রতিমা বিসর্জ্জন দেওয়া হবে।