ঢাকা ০২:১২ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৬ এপ্রিল ২০২৪, ২ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

দুই সাংসদের নির্বাচনী শোডাউন ভান্ডারিয়া পৌরসভা নির্বাচনে জেপি’র প্রার্থীর বিরুদ্ধে নির্বাচনী আচরণবিধি লংঘনের অভিযোগ

  • নিজস্ব সংবাদ :
  • আপডেট সময় ০৮:২৫:৪০ অপরাহ্ন, সোমবার, ১০ জুলাই ২০২৩
  • ৫৬ বার পড়া হয়েছে

এইচ এম নাসির উদ্দিন আকাশ পিরোজপুরের ভান্ডারিয়া পৌরসভা নির্বাচনে জাতীয় পার্টি জেপি মনোনীত প্রার্থী মাহিবুল হোসেনসহ জাতীয় পার্টি (জেপি) চেয়ারম্যান ও স্থানীয় সংসদ সদস্য আনোয়ার হোসেন মঞ্জু এবং তার জামাতা ফরিদপুর-৪ আসনের সংসদ সদস্য মজিবুর রহমান চৌধুরী নিক্সন এর বিরুদ্ধে আচরন বিধি লংঘনের অভিযোগ উঠেছে, আওয়ামী লীগ মনোনীত মেয়র প্রার্থী মো. ফাইজুর রশিদ খসরু এ অভিযোগ এনে সংবাদ সম্মেলন করেছেন।

ভান্ডারিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের আয়োজনে সোমবার ভান্ডারিয়া উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন, উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ও আওয়ামী লীগ মনোনীত মেয়র প্রার্থী মো: ফাইজুর রশিদ খসরু।

সংবাদ সম্মেলনে তিনি আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী, নির্বাচন কমিশন ও স্থানীয় প্রশাসনের দৃষ্টি আকর্ষন করে বলেন, গত ৮ জুলাই জাতীয় পার্টি জেপি’র চেয়ারম্যান ও স্থানীয় সংসদ সদস্য আনোয়ার হোসেন মঞ্জু ও ৯ জুলাই তার জামাতা ফরিদপুর-৪ আসনের সংসদ সদস্য মজিবুর রহমান চৌধুরী নিক্সন বাইসাইকেল মার্কার পক্ষে মিছিল ও মোটর শোভাযাত্রা করেন। আইন কানুনের কোন তোয়াক্কা না করে ওই শোভাযাত্রায় দুইজন সংসদ সদস্য অংশ নিয়ে শোডাউন করার ফলে স্থানীয় জনমনে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে বলে সংবাদ সম্মেলনে উল্লেখ করা হয়।

সংবাদ সম্মেলনে আরও অভিযোগ করা হয়, গতকাল ৯ তারিখে ফরিদপুর-৪ আসনের সংসদ সদস্য মজিবুর রহমান চৌধুরী নিক্সন মিছিল নিয়ে ভান্ডারিয়া বাসস্ট্যান্ড অতিক্রম করার সময় নৌকা প্রতীকের শ্লোগান দেয়ায় ভান্ডারিয়া উপজেলা ছাত্র লীগের আহবায়ক রেদোয়ান সিকদার রিচান, যুগ্ম আহবায়ক আল অমিন সরদার, পৌর ছাত্রলীগ সভাপতি আব্দুল্লাহ আল মামুন, কলেজ ছাত্রলীগের সাধারন সম্পাদক তৌহিদুল ইসলামকে তিনি অস্ত্র উচিয়ে হুমকি প্রদান করেন এবং অকথ্য ভাষায় গালাগাল করেন। বর্তমান সরকার যখন নির্বাচনকে সুষ্ঠ ভাবে সম্পন্ন করতে স্বচেষ্ট, তখন জাতীয় পার্টি জেপির প্রার্থী সার্বিক কর্মকান্ড ভান্ডারিয়ার চলমান নির্বাচনী প্রক্রিয়াকে ঝুঁকিপূর্ণ করে তুলেছে। ফলে তাদের কর্মকান্ডে প্রার্থীসহ ভোটাররা ভীত সন্ত্রস্ত হয়ে পড়েছে বলে সংবাদ সম্মেলনে উল্লেখ করা হয়। সংবাদ সম্মেলনে এ সকল ঘটনার জন্য ভান্ডারিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগ উদ্বেগ প্রকাশ করেন। এ সময় তারা আইনানুগ ব্যবস্থা নিতে যথাযথ কর্তৃপক্ষের কাছে দাবী জানান।

সংবাদ সম্মেলনে নৌকার প্রার্থী আরো অভিযোগ করেন, নির্বাচনকে বানচাল ও সহিংসতা করতে জেপি প্রার্থী বিভিন্ন ভাবে পায়তারা করছেন। এমনকি বহিরাগত সন্ত্রাসীদের দিয়ে সন্ত্রাসী কর্মকান্ড ঘটাতে পারে বলে তিনি আশংকা করছেন। বক্তব্যে বলা হয় জেপি প্রার্থী মো.মাহিবুল হোসেন মাহিম উপজেলার গৌরিপুর ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান আক্তারুজ্জামান দুলাল হত্যা মামলার চার্জশীটটভুক্ত একজন আসামী ।

উল্লেখ্য, আগামী ১৭ জুলাই পৌরসভা নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। এতে মেয়র পদে ৫জন , ৯টি ওয়ার্ডে ৩৯জন সাধারন কাউন্সিলর ও ৩টি সংরক্ষিত নারী ওয়ার্ডে ১৩জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।
প্রসঙ্গত, পৌরসভার নির্বাচনী তফসিল ঘোষনার আগে থেকেই ভান্ডারিয়া আ’লীগ ও জেপিরমধ্যে উত্তেজনা বিরাজ করতে থাকে। রমজানের শেষ দিকে ভান্ডারিয়া উপজেলা আ’লীগ অফিসে হামলা চালিয়ে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ছবি ভাংচুরের ঘটনা ঘটে। এতে উভয় পক্ষের পাল্ট পাল্টি মামলায় উপজেলা জাতীয়পার্টি (জেপি)র সাধারন সম্পাদক সহ ১০ নেতা-কর্মী কারাগারে রয়েছেন। এমপি আনোয়ার হোসেন মঞ্জু গতকাল রবিাবর দুপুরে পিরোজপুর জেলা কারাগারে নেতা কর্মীদের দেখতে গিয়েছিলেন।

এইচ এম নাসির উদ্দিন
ঝালকাঠি

ট্যাগস :

রাজবাড়ীর পাংশায় প্রান্তিক জনকল্যাণ সংস্থা কতৃক আয়োজিত ঈদ পূর্ণমিলন

দুই সাংসদের নির্বাচনী শোডাউন ভান্ডারিয়া পৌরসভা নির্বাচনে জেপি’র প্রার্থীর বিরুদ্ধে নির্বাচনী আচরণবিধি লংঘনের অভিযোগ

আপডেট সময় ০৮:২৫:৪০ অপরাহ্ন, সোমবার, ১০ জুলাই ২০২৩

এইচ এম নাসির উদ্দিন আকাশ পিরোজপুরের ভান্ডারিয়া পৌরসভা নির্বাচনে জাতীয় পার্টি জেপি মনোনীত প্রার্থী মাহিবুল হোসেনসহ জাতীয় পার্টি (জেপি) চেয়ারম্যান ও স্থানীয় সংসদ সদস্য আনোয়ার হোসেন মঞ্জু এবং তার জামাতা ফরিদপুর-৪ আসনের সংসদ সদস্য মজিবুর রহমান চৌধুরী নিক্সন এর বিরুদ্ধে আচরন বিধি লংঘনের অভিযোগ উঠেছে, আওয়ামী লীগ মনোনীত মেয়র প্রার্থী মো. ফাইজুর রশিদ খসরু এ অভিযোগ এনে সংবাদ সম্মেলন করেছেন।

ভান্ডারিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের আয়োজনে সোমবার ভান্ডারিয়া উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন, উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ও আওয়ামী লীগ মনোনীত মেয়র প্রার্থী মো: ফাইজুর রশিদ খসরু।

সংবাদ সম্মেলনে তিনি আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী, নির্বাচন কমিশন ও স্থানীয় প্রশাসনের দৃষ্টি আকর্ষন করে বলেন, গত ৮ জুলাই জাতীয় পার্টি জেপি’র চেয়ারম্যান ও স্থানীয় সংসদ সদস্য আনোয়ার হোসেন মঞ্জু ও ৯ জুলাই তার জামাতা ফরিদপুর-৪ আসনের সংসদ সদস্য মজিবুর রহমান চৌধুরী নিক্সন বাইসাইকেল মার্কার পক্ষে মিছিল ও মোটর শোভাযাত্রা করেন। আইন কানুনের কোন তোয়াক্কা না করে ওই শোভাযাত্রায় দুইজন সংসদ সদস্য অংশ নিয়ে শোডাউন করার ফলে স্থানীয় জনমনে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে বলে সংবাদ সম্মেলনে উল্লেখ করা হয়।

সংবাদ সম্মেলনে আরও অভিযোগ করা হয়, গতকাল ৯ তারিখে ফরিদপুর-৪ আসনের সংসদ সদস্য মজিবুর রহমান চৌধুরী নিক্সন মিছিল নিয়ে ভান্ডারিয়া বাসস্ট্যান্ড অতিক্রম করার সময় নৌকা প্রতীকের শ্লোগান দেয়ায় ভান্ডারিয়া উপজেলা ছাত্র লীগের আহবায়ক রেদোয়ান সিকদার রিচান, যুগ্ম আহবায়ক আল অমিন সরদার, পৌর ছাত্রলীগ সভাপতি আব্দুল্লাহ আল মামুন, কলেজ ছাত্রলীগের সাধারন সম্পাদক তৌহিদুল ইসলামকে তিনি অস্ত্র উচিয়ে হুমকি প্রদান করেন এবং অকথ্য ভাষায় গালাগাল করেন। বর্তমান সরকার যখন নির্বাচনকে সুষ্ঠ ভাবে সম্পন্ন করতে স্বচেষ্ট, তখন জাতীয় পার্টি জেপির প্রার্থী সার্বিক কর্মকান্ড ভান্ডারিয়ার চলমান নির্বাচনী প্রক্রিয়াকে ঝুঁকিপূর্ণ করে তুলেছে। ফলে তাদের কর্মকান্ডে প্রার্থীসহ ভোটাররা ভীত সন্ত্রস্ত হয়ে পড়েছে বলে সংবাদ সম্মেলনে উল্লেখ করা হয়। সংবাদ সম্মেলনে এ সকল ঘটনার জন্য ভান্ডারিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগ উদ্বেগ প্রকাশ করেন। এ সময় তারা আইনানুগ ব্যবস্থা নিতে যথাযথ কর্তৃপক্ষের কাছে দাবী জানান।

সংবাদ সম্মেলনে নৌকার প্রার্থী আরো অভিযোগ করেন, নির্বাচনকে বানচাল ও সহিংসতা করতে জেপি প্রার্থী বিভিন্ন ভাবে পায়তারা করছেন। এমনকি বহিরাগত সন্ত্রাসীদের দিয়ে সন্ত্রাসী কর্মকান্ড ঘটাতে পারে বলে তিনি আশংকা করছেন। বক্তব্যে বলা হয় জেপি প্রার্থী মো.মাহিবুল হোসেন মাহিম উপজেলার গৌরিপুর ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান আক্তারুজ্জামান দুলাল হত্যা মামলার চার্জশীটটভুক্ত একজন আসামী ।

উল্লেখ্য, আগামী ১৭ জুলাই পৌরসভা নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। এতে মেয়র পদে ৫জন , ৯টি ওয়ার্ডে ৩৯জন সাধারন কাউন্সিলর ও ৩টি সংরক্ষিত নারী ওয়ার্ডে ১৩জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।
প্রসঙ্গত, পৌরসভার নির্বাচনী তফসিল ঘোষনার আগে থেকেই ভান্ডারিয়া আ’লীগ ও জেপিরমধ্যে উত্তেজনা বিরাজ করতে থাকে। রমজানের শেষ দিকে ভান্ডারিয়া উপজেলা আ’লীগ অফিসে হামলা চালিয়ে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ছবি ভাংচুরের ঘটনা ঘটে। এতে উভয় পক্ষের পাল্ট পাল্টি মামলায় উপজেলা জাতীয়পার্টি (জেপি)র সাধারন সম্পাদক সহ ১০ নেতা-কর্মী কারাগারে রয়েছেন। এমপি আনোয়ার হোসেন মঞ্জু গতকাল রবিাবর দুপুরে পিরোজপুর জেলা কারাগারে নেতা কর্মীদের দেখতে গিয়েছিলেন।

এইচ এম নাসির উদ্দিন
ঝালকাঠি