ঢাকা ১০:৩২ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২০ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ৮ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

ইসলামী শ্রমনীতি বাস্তবায়ন করা হোক-ইসলামী শ্রমিক আন্দোলন

  • নিজস্ব সংবাদ :
  • আপডেট সময় ১০:৩৪:০৩ অপরাহ্ন, সোমবার, ১ মে ২০২৩
  • ৯৩ বার পড়া হয়েছে

০১ মে সোমবার বিকাল জেলা প্রেসক্লাবের সামনে ইসলামী শ্রমিক আন্দোলন বাংলাদেশ রাজবাড়ী জেলা শাখার উদ্যোগে শ্রমিক দিবস উপলক্ষে আন্তর্জাতিক সমাবেশ ও রেলী বের করা হয়।

পহেলা মে বিশ্বের সুবিধা বঞ্চিত শ্রমজীবী মানুষের ন্যায্য অধিকার আদায়ের ঐতিহাসিক দিন। অধিকার আদায় করতে গিয়ে তাদের অনেক আত্মত্যাগ করতে হয় এই দিনে। এজন্য এই দিনটিকে শ্রমিকদের আত্মত্যাগের দিন হিসেবে সারা বিশ্বে একযোগে ‘মহান মে দিবস বা আন্তর্জাতিক শ্রমিক দিবস হিসেবে পালিত হচ্ছে। ১৮৮৬ সালের এই দিনে যুক্তরাষ্ট্রের শিকাগো শহরের হে মার্কেটের শ্রমিকেরা তাদের শ্রমের উপযুক্ত মূল্য ও দৈনিক আট ঘণ্টা কাজের দাবিতে ব্যাপক আন্দোলনে গড়ে তুলেছিলেন । মাঠে-ঘাটে, কল-কারখানায় খেটে-খাওয়া শ্রমজীবী মানুষের অধিকার আদায়ে তারা সংগ্রাম করেছিলেন।দীর্ঘ বঞ্চনা আর শোষণ থেকে মুক্তি পেতে তাদের ছিল দুর্বার আন্দোলন  তাদের আন্দোলন রুখে দিতে আন্দোলনকারী শ্রমিকদের ওপর পুলিশ গুলি চালায়। এতে অনেক শ্রমিক হতাহত হন ।তারা তাদের অধিকার প্রতিষ্ঠার জন্য বুকের তাজা রক্ত ঝরিয়েছিল এই দিনে। এই শ্রমিকেরা অধিকার আদায়ে তাদের জীবন দেওয়ার মাধ্যমে ইতিহাস সৃষ্টি করেছেন । তাদের এই মহান আত্মত্যাগের মধ্য দিয়ে দৈনিক কাজের সময় আট ঘণ্টা করার দাবি প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল। তারপর থেকেই শ্রমজীবী মানুষেরা এই দিনটি প্রতিবছর পালন করে থাকে।

তারই অংশ হিসেবে আজ বিকাল ৩ ঘটিকায় ইসলামী শ্রমিক আন্দোলন বাংলাদেশ রাজবাড়ী জেলা শাখার ব্যবস্থাপনায় । ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ রাজবাড়ী জেলা শাখার শাখা কার্যালয়ের সামনে থেকে র‌্যালি বের করেন। র‌্যালি টি পান্না চত্বর হয়ে রাজবাড়ী রেলগেট, বাজার হয়ে এসে রাজবাড়ী প্রেসক্লাবে এসে সমাবিত হয়।

সমাবিত সমাবেশে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ রাজবাড়ী জেলা শাখার সংগ্রামী সভাপতি মুফতি শামসুল হুদা। তিনি সমাবিত শ্রমিকদের উদ্দেশ্যে প্রধান অতিথির বক্তব্যে বলেন স্বাধীনতার পরবর্তী বাংলাদেশে কখনো শ্রমিকদের ন্যায্য অধিকার দেওয়া হয়নি। এমনকি তাদের প্রাপ্যটা সঠিকভাবে তাদের কে দেওয়া হয় না। তিনি বেকার যুবকদের উদ্দেশ্য করে বলেন তারা অনেক কাজ কে ছোট মনে করে তারা বেকার অবস্থায় থাকে সেগুলো করে না। এমনকি তারা অনেক সময় অনৈতিক ও ধ্বংসাত্মক কাজে লিপ্ত হয়ে যায়।তাদের কে বলেন কোনো কাজ কে ছোট না মনে নিজেদের কর্মসংস্থান তৈরি করুন। তিনি বুঝাতে গিয়ে বলেন অনেক নবী রাসুল আছেন যারা ছাগল পেলেছেন, কৃষিকাজ করেছেন এবং কেউ কেউ দর্জি ছিলেন।

বক্তব্য রাখেন ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ রাজবাড়ী জেলা শাখার জয়েন্ট সেক্রেটারি হাফেজ আবদুল্লাহ

উক্ত সমাবেশে আরো বক্তব্য রাখেন ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ রাজবাড়ী জেলা শাখার সাংগঠনিক সম্পাদক হাফেজ সাব্বির হুসাইন। তিনি মালিকদের উদ্দেশ্যে হযরত মুহাম্মদ সাঃ এর একটা হাদিস মনে করিয়ে বলেন যে শ্রমিকদের ঘাম শুকানোর আগে তাদের প্রাপ্য পরিশোধ করে দিন। তিনি বলেন এতে শ্রমিক ও মালিকদের মধ্যে একটা শক্তিশালী বন্ধন তৈরি হবে।

উক্ত সমাবেশে বক্তব্য রাখেন ইসলামী ছাত্র আন্দোলন বাংলাদেশ রাজবাড়ী জেলা শাখার সংগ্রামী সভাপতি ছাত্র নেতা মুহাম্মাদ আব্দুর রহিম আল মাহমুদ সুমন। তিনি বলেন স্বাধীনতার ৫২ বছরে এসে এখনো এদেশের শ্রমিকরা নির্যাতিত ও সুবিধা বঞ্চিত। এখনো তাদের উপযুক্ত অধিকার ও সম্মান প্রতিষ্ঠিত হয়নি । এমনকি তাদের কোন পূর্ববর্তী নোটিশ ছাড়া তাদের চাকরিচ্যুত করা হয়। স্বাধীনতার ৫২ বছরে এসে এখনো তাদের রেশনিং এর জন্য আন্দোলন করতে হয় ।অথচ এই শ্রমিকেরা এদেশের অর্থনীতিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করছে। সুতরাং দেশকে সমৃদ্ধশালী করতে হলে শ্রমিকদের ন্যায্য অধিকার , সম্মান ও সুযোগ-সুবিধা দিতে হবে।

উক্ত সমাবেশে বক্তব্য রাখেন ইসলামী যুব আন্দোলন বাংলাদেশ রাজবাড়ী জেলা শাখার সেক্রেটারি যুবনেতা মাওলানা বেলাল হুসাইন, বক্তব্য রাখেন ইসলামী শ্রমিক আন্দোলন বাংলাদেশ জেলা সহ-সভাপতি মাওলানা হাসান শরীফ সহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ।

উক্ত সমাবেশ ও র‌্যালি তে উপস্থিত ছিলেন ইসলামী শ্রমিক আন্দোলন বাংলাদেশ রাজবাড়ি জেলা ও থানা শাখার নেতৃবৃন্দ । উপস্থিত ছিলেন নিজের অধিকার আদায়ে সোচ্চার শ্রমজীবী শ্রমিকেরা।

উক্ত সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন ইসলামী শ্রমিক আন্দোলন বাংলাদেশ রাজবাড়ী জেলা শাখার জেলা সভাপতি শ্রমিক নেতা হাফেজ মাওলানা মুস্তাফিজুর রহমান সেলিম এবং সমাবেশে সঞ্চালনা করেন জেলা সেক্রেটারি শ্রমিক নেতা মোহাম্মদ মঞ্জুরুল ইসলাম মঞ্জু।

জনপ্রিয় সংবাদ

ফরিদপুর- ২ আসনের জনগণের শান্তি নিশ্চিত করা আমার লক্ষ্য: এমপি লাবু চৌধুরী

ইসলামী শ্রমনীতি বাস্তবায়ন করা হোক-ইসলামী শ্রমিক আন্দোলন

আপডেট সময় ১০:৩৪:০৩ অপরাহ্ন, সোমবার, ১ মে ২০২৩

০১ মে সোমবার বিকাল জেলা প্রেসক্লাবের সামনে ইসলামী শ্রমিক আন্দোলন বাংলাদেশ রাজবাড়ী জেলা শাখার উদ্যোগে শ্রমিক দিবস উপলক্ষে আন্তর্জাতিক সমাবেশ ও রেলী বের করা হয়।

পহেলা মে বিশ্বের সুবিধা বঞ্চিত শ্রমজীবী মানুষের ন্যায্য অধিকার আদায়ের ঐতিহাসিক দিন। অধিকার আদায় করতে গিয়ে তাদের অনেক আত্মত্যাগ করতে হয় এই দিনে। এজন্য এই দিনটিকে শ্রমিকদের আত্মত্যাগের দিন হিসেবে সারা বিশ্বে একযোগে ‘মহান মে দিবস বা আন্তর্জাতিক শ্রমিক দিবস হিসেবে পালিত হচ্ছে। ১৮৮৬ সালের এই দিনে যুক্তরাষ্ট্রের শিকাগো শহরের হে মার্কেটের শ্রমিকেরা তাদের শ্রমের উপযুক্ত মূল্য ও দৈনিক আট ঘণ্টা কাজের দাবিতে ব্যাপক আন্দোলনে গড়ে তুলেছিলেন । মাঠে-ঘাটে, কল-কারখানায় খেটে-খাওয়া শ্রমজীবী মানুষের অধিকার আদায়ে তারা সংগ্রাম করেছিলেন।দীর্ঘ বঞ্চনা আর শোষণ থেকে মুক্তি পেতে তাদের ছিল দুর্বার আন্দোলন  তাদের আন্দোলন রুখে দিতে আন্দোলনকারী শ্রমিকদের ওপর পুলিশ গুলি চালায়। এতে অনেক শ্রমিক হতাহত হন ।তারা তাদের অধিকার প্রতিষ্ঠার জন্য বুকের তাজা রক্ত ঝরিয়েছিল এই দিনে। এই শ্রমিকেরা অধিকার আদায়ে তাদের জীবন দেওয়ার মাধ্যমে ইতিহাস সৃষ্টি করেছেন । তাদের এই মহান আত্মত্যাগের মধ্য দিয়ে দৈনিক কাজের সময় আট ঘণ্টা করার দাবি প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল। তারপর থেকেই শ্রমজীবী মানুষেরা এই দিনটি প্রতিবছর পালন করে থাকে।

তারই অংশ হিসেবে আজ বিকাল ৩ ঘটিকায় ইসলামী শ্রমিক আন্দোলন বাংলাদেশ রাজবাড়ী জেলা শাখার ব্যবস্থাপনায় । ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ রাজবাড়ী জেলা শাখার শাখা কার্যালয়ের সামনে থেকে র‌্যালি বের করেন। র‌্যালি টি পান্না চত্বর হয়ে রাজবাড়ী রেলগেট, বাজার হয়ে এসে রাজবাড়ী প্রেসক্লাবে এসে সমাবিত হয়।

সমাবিত সমাবেশে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ রাজবাড়ী জেলা শাখার সংগ্রামী সভাপতি মুফতি শামসুল হুদা। তিনি সমাবিত শ্রমিকদের উদ্দেশ্যে প্রধান অতিথির বক্তব্যে বলেন স্বাধীনতার পরবর্তী বাংলাদেশে কখনো শ্রমিকদের ন্যায্য অধিকার দেওয়া হয়নি। এমনকি তাদের প্রাপ্যটা সঠিকভাবে তাদের কে দেওয়া হয় না। তিনি বেকার যুবকদের উদ্দেশ্য করে বলেন তারা অনেক কাজ কে ছোট মনে করে তারা বেকার অবস্থায় থাকে সেগুলো করে না। এমনকি তারা অনেক সময় অনৈতিক ও ধ্বংসাত্মক কাজে লিপ্ত হয়ে যায়।তাদের কে বলেন কোনো কাজ কে ছোট না মনে নিজেদের কর্মসংস্থান তৈরি করুন। তিনি বুঝাতে গিয়ে বলেন অনেক নবী রাসুল আছেন যারা ছাগল পেলেছেন, কৃষিকাজ করেছেন এবং কেউ কেউ দর্জি ছিলেন।

বক্তব্য রাখেন ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ রাজবাড়ী জেলা শাখার জয়েন্ট সেক্রেটারি হাফেজ আবদুল্লাহ

উক্ত সমাবেশে আরো বক্তব্য রাখেন ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ রাজবাড়ী জেলা শাখার সাংগঠনিক সম্পাদক হাফেজ সাব্বির হুসাইন। তিনি মালিকদের উদ্দেশ্যে হযরত মুহাম্মদ সাঃ এর একটা হাদিস মনে করিয়ে বলেন যে শ্রমিকদের ঘাম শুকানোর আগে তাদের প্রাপ্য পরিশোধ করে দিন। তিনি বলেন এতে শ্রমিক ও মালিকদের মধ্যে একটা শক্তিশালী বন্ধন তৈরি হবে।

উক্ত সমাবেশে বক্তব্য রাখেন ইসলামী ছাত্র আন্দোলন বাংলাদেশ রাজবাড়ী জেলা শাখার সংগ্রামী সভাপতি ছাত্র নেতা মুহাম্মাদ আব্দুর রহিম আল মাহমুদ সুমন। তিনি বলেন স্বাধীনতার ৫২ বছরে এসে এখনো এদেশের শ্রমিকরা নির্যাতিত ও সুবিধা বঞ্চিত। এখনো তাদের উপযুক্ত অধিকার ও সম্মান প্রতিষ্ঠিত হয়নি । এমনকি তাদের কোন পূর্ববর্তী নোটিশ ছাড়া তাদের চাকরিচ্যুত করা হয়। স্বাধীনতার ৫২ বছরে এসে এখনো তাদের রেশনিং এর জন্য আন্দোলন করতে হয় ।অথচ এই শ্রমিকেরা এদেশের অর্থনীতিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করছে। সুতরাং দেশকে সমৃদ্ধশালী করতে হলে শ্রমিকদের ন্যায্য অধিকার , সম্মান ও সুযোগ-সুবিধা দিতে হবে।

উক্ত সমাবেশে বক্তব্য রাখেন ইসলামী যুব আন্দোলন বাংলাদেশ রাজবাড়ী জেলা শাখার সেক্রেটারি যুবনেতা মাওলানা বেলাল হুসাইন, বক্তব্য রাখেন ইসলামী শ্রমিক আন্দোলন বাংলাদেশ জেলা সহ-সভাপতি মাওলানা হাসান শরীফ সহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ।

উক্ত সমাবেশ ও র‌্যালি তে উপস্থিত ছিলেন ইসলামী শ্রমিক আন্দোলন বাংলাদেশ রাজবাড়ি জেলা ও থানা শাখার নেতৃবৃন্দ । উপস্থিত ছিলেন নিজের অধিকার আদায়ে সোচ্চার শ্রমজীবী শ্রমিকেরা।

উক্ত সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন ইসলামী শ্রমিক আন্দোলন বাংলাদেশ রাজবাড়ী জেলা শাখার জেলা সভাপতি শ্রমিক নেতা হাফেজ মাওলানা মুস্তাফিজুর রহমান সেলিম এবং সমাবেশে সঞ্চালনা করেন জেলা সেক্রেটারি শ্রমিক নেতা মোহাম্মদ মঞ্জুরুল ইসলাম মঞ্জু।