ঢাকা ১১:০৫ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২০ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ৮ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

মানিকগঞ্জে ভুয়া মুক্তিযোদ্ধা গ্রেপ্তার

  • নিজস্ব সংবাদ :
  • আপডেট সময় ০৩:৩২:০৪ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ৭ এপ্রিল ২০২৩
  • ৯৬ বার পড়া হয়েছে

সাইফুল ইসলাম, মানিকগঞ্জ : মানিকগঞ্জে এক মৃত মুক্তিযোদ্ধার সনদ জালিয়াতি করার অপরাধে আব্দুস সামাদ (৬৭) নামে এক ভুয়া মুক্তিযোদ্ধাকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

বৃহস্পতিবার দুপুরে ওই ভুয়া মুক্তিযোদ্ধাকে আদালতে পাঠানো হয়েছে। এর আগে গতকাল বুধবার রাতে পুলিশ অভিযান চালিয়ে জেলার সাটুরিয়া উপজেলার তেবাড়িয়া গ্রাম থেকে তাকে গ্রেপ্তার করে।

গ্রেপ্তার আব্দুস ছামাদ জেলার সাটুরিয়া উপজেলার তেবাড়ীয়া গ্রামের  মৃত মুন্নাফ মিয়ার ছেলে।

দৌলতপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা শফিকুল ইসলাম জানান, মানিকগঞ্জের সিংগাইর উপজেলার গোলাইডাঙ্গা গ্রামের মৃত কলিম উদ্দিনের ছেলে বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুস সামাদ মারা যান ২০০৭ সালে। প্রকৃত ওই মুক্তিযোদ্ধার নামের সাথে মিল থাকায় ভুয়া মুক্তিযোদ্ধা আব্দুস সামাদ তার ছেলে ময়নালের সহযোগিতায় মুক্তিযোদ্ধার সনদ সংগ্রহ করে। সনদে আব্দুস সামাদ দৌলতপুর উপজেলার গালা গ্রামের ঠিকানা ব্যবহার করেন।

তিনি আরো জানান, এই সংবাদ জানতে পেরে প্রকৃত মুক্তিযোদ্ধার মেয়ে সেলিনা বেগম (৪৮) সিংগাইর থানায় একটি প্রতারনা মামলা করেন। পরে মামলাটি আমলে নিয়ে আদালত আব্দুস সামাদের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারী করেন। পরে পুলিশ অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেপ্তার করে।

জনপ্রিয় সংবাদ

ফরিদপুর- ২ আসনের জনগণের শান্তি নিশ্চিত করা আমার লক্ষ্য: এমপি লাবু চৌধুরী

মানিকগঞ্জে ভুয়া মুক্তিযোদ্ধা গ্রেপ্তার

আপডেট সময় ০৩:৩২:০৪ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ৭ এপ্রিল ২০২৩

সাইফুল ইসলাম, মানিকগঞ্জ : মানিকগঞ্জে এক মৃত মুক্তিযোদ্ধার সনদ জালিয়াতি করার অপরাধে আব্দুস সামাদ (৬৭) নামে এক ভুয়া মুক্তিযোদ্ধাকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

বৃহস্পতিবার দুপুরে ওই ভুয়া মুক্তিযোদ্ধাকে আদালতে পাঠানো হয়েছে। এর আগে গতকাল বুধবার রাতে পুলিশ অভিযান চালিয়ে জেলার সাটুরিয়া উপজেলার তেবাড়িয়া গ্রাম থেকে তাকে গ্রেপ্তার করে।

গ্রেপ্তার আব্দুস ছামাদ জেলার সাটুরিয়া উপজেলার তেবাড়ীয়া গ্রামের  মৃত মুন্নাফ মিয়ার ছেলে।

দৌলতপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা শফিকুল ইসলাম জানান, মানিকগঞ্জের সিংগাইর উপজেলার গোলাইডাঙ্গা গ্রামের মৃত কলিম উদ্দিনের ছেলে বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুস সামাদ মারা যান ২০০৭ সালে। প্রকৃত ওই মুক্তিযোদ্ধার নামের সাথে মিল থাকায় ভুয়া মুক্তিযোদ্ধা আব্দুস সামাদ তার ছেলে ময়নালের সহযোগিতায় মুক্তিযোদ্ধার সনদ সংগ্রহ করে। সনদে আব্দুস সামাদ দৌলতপুর উপজেলার গালা গ্রামের ঠিকানা ব্যবহার করেন।

তিনি আরো জানান, এই সংবাদ জানতে পেরে প্রকৃত মুক্তিযোদ্ধার মেয়ে সেলিনা বেগম (৪৮) সিংগাইর থানায় একটি প্রতারনা মামলা করেন। পরে মামলাটি আমলে নিয়ে আদালত আব্দুস সামাদের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারী করেন। পরে পুলিশ অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেপ্তার করে।