ঢাকা ১২:০৮ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ২৭ মার্চ ২০২৩, ১২ চৈত্র ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
এইমাত্র প্রাপ্ত ::
Logo ঝালকাঠিতে স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস উদযাপনের ব্যানারে স্বাধীনতা বানান ভুল Logo গরু চুরি নয়-গরু জবাই করে মাংস নিয়ে গেল চোরে Logo রমজানে দ্রব্যমূল্য মানুষের ক্রয় সীমায় রাখুন- রাজবাড়ীতে ইসলামি আন্দোলন বাংলাদেশ Logo বাল্যবিবাহের প্রস্তুতির সময় ভুয়া কাজী গ্রেফতার Logo দুবাইতে আলোচিত আরাভ খানকে আটকের গুঞ্জন Logo ৭বছরের শিশু ভাতিজিকে ধর্ষণের অভিযোগে চাচা গ্রেফতার Logo ঝালকাঠিতে নিজ যোগ্যতায় পুলিশে চাকুরী পেলো ২৬ নারী পুরুষ Logo বাংলার মানুষের ভাগ্য পরিবর্তনে কাজ করছে শেখ হাসিনা-এমপি জিল্লুল হাকিম Logo অনিয়মের সংবাদ প্রকাশ করায় সাংবাদিককে প্রাণনাশের হুমকি Logo রাজবাড়ী পাংশা থেকে ৭ কেজি স্বর্ণ উদ্ধার, গ্রেফতার ৩
হাসপাতালে নাম রাখা হয়েছিল পদ্মা ও সেতু, বাড়িতে গিয়েই নাম পরিবর্তন

হাসপাতালে নাম রাখা হয়েছিল পদ্মা ও সেতু, বাড়িতে গিয়েই নাম পরিবর্তন

  • অনলাইন ডেস্ক
  • আপডেট সময় ০৮:২৩:৪৮ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ৩ অগাস্ট ২০২২
  • ২২৩ বার পড়া হয়েছে

কুমিল্লার বরুড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে জন্ম নেয়া যমজ শিশু পদ্মা ও সেতুর নাম পরিবর্তন করে উম্মে হানি আয়েশা ও আরোহী আঁখি রেখেছেন শিশুদের পরিবার।

মঙ্গলবার (২ আগস্ট) দুপুরে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন যমজ শিশুর দাদা শুকুর আলী ও তাদের মা সাবিকুন নাহার ঝুমুর।

তারা জানান, গত ২১ জুন জন্ম নেয়ার পর বরুড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. কামরুল হাসান সোহেল দুই শিশুর নাম রাখেন পদ্মা ও সেতু। পরে হাসপাতাল থেকে ছাড়পত্র পেয়ে বাড়িতে গেলে জন্মের ছয় দিন পর (২৭ জুন) ওই দুই শিশু দু’টির নাম পরিবর্তন করে রাখা হয় উম্মে হানি আয়শা ও আরোহী আঁখি।

নাম পরিবর্তন কেন করা হলো, জানতে চাইলে শিশুদের দাদা শুকুর আলী বলেন, এলাকার মানুষ বিষয়টি ভালোভাবে নেয়নি। এলাকা থেকে ইসলামিক নাম রাখার জন্য বলা হয়। পরে তাদের বাবা সোহাগের পছন্দে

দুজনের নাম উম্মে হানি আয়শা ও আরোহী আঁখি রাখা হয়।এর আগে গত ২১ জুন সকাল ১০টায় বরুড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে তাদের জন্ম হলে তাদের নাম পদ্মা ও সেতু রেখেছিলেন উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. কামরুল হাসান সোহেল।

তবে হাসপাতাল থেকে তাদের সব সময় খোঁজখবর রাখার কথা বললেও শিশু দুটির পরিবার জানায়, হাসপাতাল থেকে আসার পর থেকে এ পর্যন্ত কেউই তাদের কোনো খোঁজ নেয়নি।

তাদের মা ঝুমুর বলেন, আঁখির কিছুদিন আগে অ্যালার্জি হয়। তখন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে চিকিৎসক ওষুধ লিখে দেন। পরে বাজার থেকে নিজের টাকায় ওষুধ কিনতে হয়েছে। তবে তারা এখন সুস্থ আছে বলে জানান তিনি।

এ বিষয়ে বরুড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. কামরুল হাসান সোহেল বলেন, শিশু দুটির নাম তাদের পরিবারের লোকজনের সম্মতিতে পদ্মা ও সেতু রাখা হয়েছিল। এখন যদি তাদের নাম পরিবর্তন করা হয়, তাহলে এটা পরিবারের বিষয়। খোঁজখবর নেওয়ার বিষয়ে তিনি বলেন, তারা হাসপাতাল থেকে যাওয়ার সময় তাদের মোবাইল নম্বর রাখা হয়নি। তাই যোগাযোগ করা সম্ভব হয়নি।

জনপ্রিয় সংবাদ

ঝালকাঠিতে স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস উদযাপনের ব্যানারে স্বাধীনতা বানান ভুল

হাসপাতালে নাম রাখা হয়েছিল পদ্মা ও সেতু, বাড়িতে গিয়েই নাম পরিবর্তন

হাসপাতালে নাম রাখা হয়েছিল পদ্মা ও সেতু, বাড়িতে গিয়েই নাম পরিবর্তন

আপডেট সময় ০৮:২৩:৪৮ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ৩ অগাস্ট ২০২২

কুমিল্লার বরুড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে জন্ম নেয়া যমজ শিশু পদ্মা ও সেতুর নাম পরিবর্তন করে উম্মে হানি আয়েশা ও আরোহী আঁখি রেখেছেন শিশুদের পরিবার।

মঙ্গলবার (২ আগস্ট) দুপুরে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন যমজ শিশুর দাদা শুকুর আলী ও তাদের মা সাবিকুন নাহার ঝুমুর।

তারা জানান, গত ২১ জুন জন্ম নেয়ার পর বরুড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. কামরুল হাসান সোহেল দুই শিশুর নাম রাখেন পদ্মা ও সেতু। পরে হাসপাতাল থেকে ছাড়পত্র পেয়ে বাড়িতে গেলে জন্মের ছয় দিন পর (২৭ জুন) ওই দুই শিশু দু’টির নাম পরিবর্তন করে রাখা হয় উম্মে হানি আয়শা ও আরোহী আঁখি।

নাম পরিবর্তন কেন করা হলো, জানতে চাইলে শিশুদের দাদা শুকুর আলী বলেন, এলাকার মানুষ বিষয়টি ভালোভাবে নেয়নি। এলাকা থেকে ইসলামিক নাম রাখার জন্য বলা হয়। পরে তাদের বাবা সোহাগের পছন্দে

দুজনের নাম উম্মে হানি আয়শা ও আরোহী আঁখি রাখা হয়।এর আগে গত ২১ জুন সকাল ১০টায় বরুড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে তাদের জন্ম হলে তাদের নাম পদ্মা ও সেতু রেখেছিলেন উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. কামরুল হাসান সোহেল।

তবে হাসপাতাল থেকে তাদের সব সময় খোঁজখবর রাখার কথা বললেও শিশু দুটির পরিবার জানায়, হাসপাতাল থেকে আসার পর থেকে এ পর্যন্ত কেউই তাদের কোনো খোঁজ নেয়নি।

তাদের মা ঝুমুর বলেন, আঁখির কিছুদিন আগে অ্যালার্জি হয়। তখন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে চিকিৎসক ওষুধ লিখে দেন। পরে বাজার থেকে নিজের টাকায় ওষুধ কিনতে হয়েছে। তবে তারা এখন সুস্থ আছে বলে জানান তিনি।

এ বিষয়ে বরুড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. কামরুল হাসান সোহেল বলেন, শিশু দুটির নাম তাদের পরিবারের লোকজনের সম্মতিতে পদ্মা ও সেতু রাখা হয়েছিল। এখন যদি তাদের নাম পরিবর্তন করা হয়, তাহলে এটা পরিবারের বিষয়। খোঁজখবর নেওয়ার বিষয়ে তিনি বলেন, তারা হাসপাতাল থেকে যাওয়ার সময় তাদের মোবাইল নম্বর রাখা হয়নি। তাই যোগাযোগ করা সম্ভব হয়নি।