ঢাকা ০৮:১২ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ১৯ এপ্রিল ২০২৪, ৬ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ঝালকাঠিতে এক পরিবারের ছয়জনকে চেতনানাশক ঔষধ খাইয়ে স্বর্ণ ও নগদ টাকা লুটে নিয়েছে দুর্বৃত্তরা

  • নিজস্ব সংবাদ :
  • আপডেট সময় ০১:৪৭:০৮ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ১১ সেপ্টেম্বর ২০২৩
  • ৪৪ বার পড়া হয়েছে

ঝালকাঠি প্রতিনিধি: ঝালকাঠি সদর উপজেলার বাসন্ডা ইউনিয়নের চামটা গ্রামে তালুকদার বাড়িতে চেতনানাশক ঔষধ খাইয়ে এক পরিবারের ছয় জনকে অচেতন করে বসত ঘত থেকে স্বর্ণ ও নগদ টাকা লুটে নিয়েছে দুর্বৃত্তরা।

শনিবার গভীর রাতের যে কোন সময় এঘটনা ঘটে। টয়লেটের ভেন্টিলেটর ভেঙ্গে দুর্বৃত্তরা বসত ঘরে ঢুকে নগদ ৮০ হাজার টাকা ও চার ভরি স্বর্ণালঙ্কার নিয়ে যায়। গুরুতর অবস্থায় চার জন ঝালকাঠি সদর হাসপাতালে চিকিৎিসাধীন রয়েছেন। এদের মধ্যে চার জনের জ্ঞান এখনও ফিরেনি।

ঝালকাঠি সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন, গৃহকর্তী শাহীদা বাসার ( ৬৫), তার বোন খালেদা বেগম ( ৫০), ছেলে রাকিব হোসেন তালুকদার (৩২) , পুত্রবধু সাবিহা সিদ্দিকা (২৮) ও রাবেয়া আক্তার (২০) । ছেলে মুরাদ হোসেন রাব্বী (৩৫) চিকিৎসা নিয়ে সুস্থ হয়েছেন।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, শনিবার রাত সারে ১০ টার দিকে প্রতিদিনের মত খাবার খেয়ে ঘুমাতে যায় পরিবারের সবাই। রবিবার সকাল সারে ৮ টার দিকে সাবিহা সিদ্দিকা ঘুম থেকে ওঠে দেখে বসত ঘরের সব কিছু এলোমেলো। পরে তার ডাক চিৎকারে প্রতিবেশিরা এগিয়ে এসে পরিবারে সকলকে উদ্ধার করে ঝালকাঠি সদর হাসপাতালে ভর্ত্তি করায়।

ঝালকাঠি সদর থানার ওসি মোহাম্মদ নাসির উদ্দিন সরকার বলেন, ‘ খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। যারা এ ঘটনা ঘটিয়েছে তাদের চিহ্নিত করার চেষ্ঠা চলছে। এব্যাপারে আইনগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এইচ এম নাসির উদ্দিন
ঝালকাঠি প্রতিনিধি
০১৭১৩৯৬৩৬৭৫

রাজবাড়ীর পাংশায় প্রান্তিক জনকল্যাণ সংস্থা কতৃক আয়োজিত ঈদ পূর্ণমিলন

ঝালকাঠিতে এক পরিবারের ছয়জনকে চেতনানাশক ঔষধ খাইয়ে স্বর্ণ ও নগদ টাকা লুটে নিয়েছে দুর্বৃত্তরা

আপডেট সময় ০১:৪৭:০৮ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ১১ সেপ্টেম্বর ২০২৩

ঝালকাঠি প্রতিনিধি: ঝালকাঠি সদর উপজেলার বাসন্ডা ইউনিয়নের চামটা গ্রামে তালুকদার বাড়িতে চেতনানাশক ঔষধ খাইয়ে এক পরিবারের ছয় জনকে অচেতন করে বসত ঘত থেকে স্বর্ণ ও নগদ টাকা লুটে নিয়েছে দুর্বৃত্তরা।

শনিবার গভীর রাতের যে কোন সময় এঘটনা ঘটে। টয়লেটের ভেন্টিলেটর ভেঙ্গে দুর্বৃত্তরা বসত ঘরে ঢুকে নগদ ৮০ হাজার টাকা ও চার ভরি স্বর্ণালঙ্কার নিয়ে যায়। গুরুতর অবস্থায় চার জন ঝালকাঠি সদর হাসপাতালে চিকিৎিসাধীন রয়েছেন। এদের মধ্যে চার জনের জ্ঞান এখনও ফিরেনি।

ঝালকাঠি সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন, গৃহকর্তী শাহীদা বাসার ( ৬৫), তার বোন খালেদা বেগম ( ৫০), ছেলে রাকিব হোসেন তালুকদার (৩২) , পুত্রবধু সাবিহা সিদ্দিকা (২৮) ও রাবেয়া আক্তার (২০) । ছেলে মুরাদ হোসেন রাব্বী (৩৫) চিকিৎসা নিয়ে সুস্থ হয়েছেন।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, শনিবার রাত সারে ১০ টার দিকে প্রতিদিনের মত খাবার খেয়ে ঘুমাতে যায় পরিবারের সবাই। রবিবার সকাল সারে ৮ টার দিকে সাবিহা সিদ্দিকা ঘুম থেকে ওঠে দেখে বসত ঘরের সব কিছু এলোমেলো। পরে তার ডাক চিৎকারে প্রতিবেশিরা এগিয়ে এসে পরিবারে সকলকে উদ্ধার করে ঝালকাঠি সদর হাসপাতালে ভর্ত্তি করায়।

ঝালকাঠি সদর থানার ওসি মোহাম্মদ নাসির উদ্দিন সরকার বলেন, ‘ খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। যারা এ ঘটনা ঘটিয়েছে তাদের চিহ্নিত করার চেষ্ঠা চলছে। এব্যাপারে আইনগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এইচ এম নাসির উদ্দিন
ঝালকাঠি প্রতিনিধি
০১৭১৩৯৬৩৬৭৫