ঢাকা ০৮:০৩ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ১৯ এপ্রিল ২০২৪, ৬ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ফরিদপুরের মধুখালীতে ৮ বছরের শিশু ছাত্রকে গলাটিপে হত্যা করলো শিক্ষক

  • নিজস্ব সংবাদ :
  • আপডেট সময় ০৪:৪৭:৪০ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ৩০ মে ২০২৩
  • ৬৯ বার পড়া হয়েছে

পার্থ রায় মধুখালী উপজেলা প্রতিনিধি

অদ্য উনত্রিশ মে সোমবার এগারো ঘটিকায় ফরিদপুর জেলার মধুখালী উপজেলার পৌরসভাস্হ পূর্ব গাড়াখোলা মোহাম্মদিয়া আছিয়া মাদ্রাসা ও এতিমখানার শিক্ষার্থী ইমান আলী( ৮),পিতা- হৃদয় মোল্লা, সাং-সমসকান্দি, ইউপি- নওপাড়া, থানা মধুখালী, জেলা ফরিদপুর কে উক্ত মাদ্রাসার মক্তব বিভাগের শিক্ষক হেদায়েতুল্লাহ বয়স ছাব্বিশ বছর, পিতা- মহসিন মিয়া, সাং- পিরের চর,থানা-মোহনগঞ্জ, জেলা- নেত্রকোনা ভিকটিমকে গলা টিপে ধরলে সে ঘটনাস্থলেই মারা যায়।ঘটনাটি দেখে ফেললে উক্ত বিভাগের ছাত্র হোসাইন বয়স বারো বছর, পিতা- অজ্ঞাত, মাতা আন্না খাতুন, সাং- ভূষনা লক্ষনদিয়া, থানা- মধুখালী, জেলা ফরিদপুর কে সঙ্গে নিয়ে অভিযুক্ত শিক্ষক হেদায়েতুল্লাহ বাস যোগে পলায়নের প্রাক্কালে সংবাদ পেয়ে মধুখালী থানার অফিসার ইনচার্জ সঙ্গীয় ফোর্স সহ তাকে উপজেলার মাঝকান্দি নামক স্থান থেকে গ্রেফতার করে।
বর্তমানে অভিযুক্ত শিক্ষক হেদায়েতুল্লাহ মধুখালী থানা পুলিশের হেফাজতে রয়েছে এবং এস আই মাসুদ রানা লাশের সুরতহাল প্রতিবেদন তৈরি করেন। লাশ থানা হেফাজতে আছে। এ ব্যাপারে আইনগত ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন।জানা যায়, পূর্ব গাড়াখোলা মোহাম্মদিয়া আছিয়া মাদ্রাসা ও এতিমখানায় এক সপ্তাহ আগে হেদায়েতুল্লাহ শিক্ষক হিসেবে নিয়োগ পায়। নিয়োগের পর থেকেই শিক্ষক হেদায়েতুল্লাহর আচার আচরণ উগ্রপ্রকৃতির ছিল এবং ছাত্রদ স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে

রাজবাড়ীর পাংশায় প্রান্তিক জনকল্যাণ সংস্থা কতৃক আয়োজিত ঈদ পূর্ণমিলন

ফরিদপুরের মধুখালীতে ৮ বছরের শিশু ছাত্রকে গলাটিপে হত্যা করলো শিক্ষক

আপডেট সময় ০৪:৪৭:৪০ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ৩০ মে ২০২৩

পার্থ রায় মধুখালী উপজেলা প্রতিনিধি

অদ্য উনত্রিশ মে সোমবার এগারো ঘটিকায় ফরিদপুর জেলার মধুখালী উপজেলার পৌরসভাস্হ পূর্ব গাড়াখোলা মোহাম্মদিয়া আছিয়া মাদ্রাসা ও এতিমখানার শিক্ষার্থী ইমান আলী( ৮),পিতা- হৃদয় মোল্লা, সাং-সমসকান্দি, ইউপি- নওপাড়া, থানা মধুখালী, জেলা ফরিদপুর কে উক্ত মাদ্রাসার মক্তব বিভাগের শিক্ষক হেদায়েতুল্লাহ বয়স ছাব্বিশ বছর, পিতা- মহসিন মিয়া, সাং- পিরের চর,থানা-মোহনগঞ্জ, জেলা- নেত্রকোনা ভিকটিমকে গলা টিপে ধরলে সে ঘটনাস্থলেই মারা যায়।ঘটনাটি দেখে ফেললে উক্ত বিভাগের ছাত্র হোসাইন বয়স বারো বছর, পিতা- অজ্ঞাত, মাতা আন্না খাতুন, সাং- ভূষনা লক্ষনদিয়া, থানা- মধুখালী, জেলা ফরিদপুর কে সঙ্গে নিয়ে অভিযুক্ত শিক্ষক হেদায়েতুল্লাহ বাস যোগে পলায়নের প্রাক্কালে সংবাদ পেয়ে মধুখালী থানার অফিসার ইনচার্জ সঙ্গীয় ফোর্স সহ তাকে উপজেলার মাঝকান্দি নামক স্থান থেকে গ্রেফতার করে।
বর্তমানে অভিযুক্ত শিক্ষক হেদায়েতুল্লাহ মধুখালী থানা পুলিশের হেফাজতে রয়েছে এবং এস আই মাসুদ রানা লাশের সুরতহাল প্রতিবেদন তৈরি করেন। লাশ থানা হেফাজতে আছে। এ ব্যাপারে আইনগত ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন।জানা যায়, পূর্ব গাড়াখোলা মোহাম্মদিয়া আছিয়া মাদ্রাসা ও এতিমখানায় এক সপ্তাহ আগে হেদায়েতুল্লাহ শিক্ষক হিসেবে নিয়োগ পায়। নিয়োগের পর থেকেই শিক্ষক হেদায়েতুল্লাহর আচার আচরণ উগ্রপ্রকৃতির ছিল এবং ছাত্রদ স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে