ঢাকা ১০:১৯ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২০ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ৮ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

ঝালকাঠিতে উপজেলা চেয়ারম্যানের সরকারি গাড়ির ধাক্কায় প্রাণ গেল মোটরসাইকেল আরোহী যুবকের

  • নিজস্ব সংবাদ :
  • আপডেট সময় ০৫:২২:০১ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৫ মে ২০২৩
  • ৬১ বার পড়া হয়েছে

ঝালকাঠি প্রতিনিধিঃ- ঝালকাঠির নলছিটিতে কাঁঠালিয়া উপজেলা চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মোঃ এমাদুল হকের সরকারি গাড়ির ধাক্কায় মোটরসাইকেল আরোহী এক যুবকের মৃত্যু হয়েছে। এ সময় গাড়িতে উপজেলা চেয়ারম্যানের সাথে কাঠালিয়া থানার ওসি মুরাদ আলী ও ছিলেন। আজ বৃহস্পতিবার দুপুরের দিকে নলছিটি উপজেলার ঝালকাঠি-বরিশাল আঞ্চলিক মহাসড়কের ষাইটপাকিয়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। নলছিটি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মুহা. আতাউর রহমান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। এই গাড়িতে ঘটনার সময় কাঠালিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মুরাদ আলী ছিলেন। তিনিও এর সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। এ সময় তাঁরা উপজেলা পরিষদের সরকারি গাড়িযোগে বরিশাল থেকে ঝালকাঠিতে আসছিলেন। নিহত যুবকের নাম মোঃ মামুন (৪৫)। সে নলছিটি উপজেলার মেরুহার এলাকার মোহাম্মদ আলীর ছেলে। প্রত্যক্ষদর্শী ওসি মুরাদ আলী জানান, উপজেলা চেয়ারম্যান এমাদুল হক ও তিনি কাঠালিয়া উপজেলা পরিষদের গাড়িযোগে বরিশাল থেকে ঝালকাঠিতে ফিরছিলেন। এ সময় নলছিটি উপজেলার ষাইটপাকিয়া বাজার এলাকায় সংযোগ সড়ক থেকে মোটরসাইকেল আরোহী মামুন বাজারের প্রধান সড়কে উঠতে ছিল। এসময় বরিশাল থেকে ছেড়ে আসা কাঁঠালিয়া উপজেলা চেয়ারম্যান এমাদুল হকের গাড়ি তাঁকে ধাক্কা দেয়। এতে তিনি গুরুতর আহত হন। স্থানীয় লোকজন তাঁকে উদ্ধার করে বরিশাল শের-ই বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসারত অবস্থায় দুপুরেই তাঁর মৃত্যু হয়।ওসি মুরাদ আলী আরও জানান, এ সময় মূল সরকারি গাড়ির চালক শামীম অনেক দিন ধরে গাড়ী চালাচ্ছিল না।  বাবু নামে অন্য একজন চালক গাড়ি চালাচ্ছিলেন। তবে তাঁর ড্রাইভিং লাইসেন্স ছিল। এ বিষয় জানতে কাঠালিয়া উপজেলা চেয়ারম্যান এমাদুল হকের মুঠোফোনে একাধিক বার কল দিলেও তিনি তা রিসিভ করেননি। নলছিটি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মুহা. আতাউর রহমান বলেন, কাঁঠালিয়া উপজেলা চেয়ারম্যানের গাড়ি মোটরসাইকেল আরোহীকে ধাক্কা দিলে গুরুতর আহত হয়। তাঁকে হাসপাতালে নেওয়া হলে সেখানে তিনি মারা যান। পরিবারের লোকজন অভিযোগ দিলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

ট্যাগস :
জনপ্রিয় সংবাদ

ফরিদপুর- ২ আসনের জনগণের শান্তি নিশ্চিত করা আমার লক্ষ্য: এমপি লাবু চৌধুরী

ঝালকাঠিতে উপজেলা চেয়ারম্যানের সরকারি গাড়ির ধাক্কায় প্রাণ গেল মোটরসাইকেল আরোহী যুবকের

আপডেট সময় ০৫:২২:০১ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৫ মে ২০২৩

ঝালকাঠি প্রতিনিধিঃ- ঝালকাঠির নলছিটিতে কাঁঠালিয়া উপজেলা চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মোঃ এমাদুল হকের সরকারি গাড়ির ধাক্কায় মোটরসাইকেল আরোহী এক যুবকের মৃত্যু হয়েছে। এ সময় গাড়িতে উপজেলা চেয়ারম্যানের সাথে কাঠালিয়া থানার ওসি মুরাদ আলী ও ছিলেন। আজ বৃহস্পতিবার দুপুরের দিকে নলছিটি উপজেলার ঝালকাঠি-বরিশাল আঞ্চলিক মহাসড়কের ষাইটপাকিয়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। নলছিটি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মুহা. আতাউর রহমান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। এই গাড়িতে ঘটনার সময় কাঠালিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মুরাদ আলী ছিলেন। তিনিও এর সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। এ সময় তাঁরা উপজেলা পরিষদের সরকারি গাড়িযোগে বরিশাল থেকে ঝালকাঠিতে আসছিলেন। নিহত যুবকের নাম মোঃ মামুন (৪৫)। সে নলছিটি উপজেলার মেরুহার এলাকার মোহাম্মদ আলীর ছেলে। প্রত্যক্ষদর্শী ওসি মুরাদ আলী জানান, উপজেলা চেয়ারম্যান এমাদুল হক ও তিনি কাঠালিয়া উপজেলা পরিষদের গাড়িযোগে বরিশাল থেকে ঝালকাঠিতে ফিরছিলেন। এ সময় নলছিটি উপজেলার ষাইটপাকিয়া বাজার এলাকায় সংযোগ সড়ক থেকে মোটরসাইকেল আরোহী মামুন বাজারের প্রধান সড়কে উঠতে ছিল। এসময় বরিশাল থেকে ছেড়ে আসা কাঁঠালিয়া উপজেলা চেয়ারম্যান এমাদুল হকের গাড়ি তাঁকে ধাক্কা দেয়। এতে তিনি গুরুতর আহত হন। স্থানীয় লোকজন তাঁকে উদ্ধার করে বরিশাল শের-ই বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসারত অবস্থায় দুপুরেই তাঁর মৃত্যু হয়।ওসি মুরাদ আলী আরও জানান, এ সময় মূল সরকারি গাড়ির চালক শামীম অনেক দিন ধরে গাড়ী চালাচ্ছিল না।  বাবু নামে অন্য একজন চালক গাড়ি চালাচ্ছিলেন। তবে তাঁর ড্রাইভিং লাইসেন্স ছিল। এ বিষয় জানতে কাঠালিয়া উপজেলা চেয়ারম্যান এমাদুল হকের মুঠোফোনে একাধিক বার কল দিলেও তিনি তা রিসিভ করেননি। নলছিটি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মুহা. আতাউর রহমান বলেন, কাঁঠালিয়া উপজেলা চেয়ারম্যানের গাড়ি মোটরসাইকেল আরোহীকে ধাক্কা দিলে গুরুতর আহত হয়। তাঁকে হাসপাতালে নেওয়া হলে সেখানে তিনি মারা যান। পরিবারের লোকজন অভিযোগ দিলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।