ঢাকা ০৯:২৭ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২০ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ৮ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

রাজবাড়ীতে সন্ত্রাসীদের গুলিতে নিহত ছাত্রলীগ নেতা সবুজ

  • নিজস্ব সংবাদ :
  • আপডেট সময় ০২:৩১:০২ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ২৪ এপ্রিল ২০২৩
  • ২৩০২ বার পড়া হয়েছে

মীর সামসুজ্জামান, রাজবাড়ী, রাজবাড়ীতে সন্ত্রাসীদের গুলিতে সদর উপজেলা ছাত্রলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও বরাট ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি শেখ সুমন সবুজ(২৮) নিহত হয়েছে।এ ঘটনায় গুলিবৃদ্ধ হয়ে আহত হয়েছে আরো দুই জন।

রোববার(২৩ এপ্রিল) রাত সাড়ে ১০ টার দিকে সদর উপজেলার বরাট ইউনিয়নের উড়াকান্দা এলাকায় সবুজের নিজ বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত সবুজ শেখ রাজবাড়ী সদর উপজেলার বরাট ইউনিয়নের উড়াকান্দা এলাকার শামসুল আলম ওরফে কালা বাবুর ছেলে।
ও বরাট ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শেখ ফরিদের ভাতিজা।

আহতরা হলো,একই এলাকার সজীব হোসেন ও মহায় মমীন।

স্থানীয়রা সূত্রে জানা গেছে,রোববার রাতে বরাট ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি সবুজ, তার বন্ধু সজীব ও স্পীডবোর্ড চালক মহায় মমীন সহ মোট নয় জন সবুজের নিজ বাড়ির রুমে বসে গল্প করছিলেন।এ সময় তার ঘরের জানালা দিয়ে দুর্বৃত্তরা গুলি ছুড়লে তারা তিনজনই গুরুতর আহত ও গুলিবৃদ্ধ হয়।
স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করে ফরিদপুর বঙ্গবন্ধু মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক সবুজকে মৃত্য ঘোষনা করে।

বরাট ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নিহত সবুজের চাচা শেখ ফরিদ জানান, সবুজ রাত সাড়ে ৯টার সময় উড়াকান্দা পদ্মা নদীর পাড়ে অবস্থিত গল্পগৃহ রির্সোট থেকে বাড়িতে এসে বন্ধুদের নিয়ে ঘরের মধ্যে হিসেব করছিল।এমন সময় বাড়ির সামনে একটি ককটেল বিস্ফোরণ ঘটিয়ে আতংক সৃষ্টি করে।পরে এক দল সন্ত্রাসী বাড়িতে প্রবেশ করে জানালা দিয়ে এলোপাতাড়ি গুলি বর্ষণ করে পালিয়ে যায়। এতে সবুজের মাথায় কয়েকটি গুলি লাগে। সাথে সাথে তাকে উদ্ধার রাজবাড়ী সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে তার অবস্থার অবনতি দেখে চিকিৎসক ফরিদপুরে রেফার্ড করে।পরে ফরিদপুর হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার কিছু সময় পরেই তার মৃত্যু হয়।

রাজবাড়ী জেলা ছাত্রলীগের সাধারন সম্পাদক জাহিদুল ইসলাম জাহিদ বলেন, বিষয়টি খুবই মর্মান্তিক।সবুজ ছাত্রলীগের একজন নিবেদিত নেতা ছিলেন। তার মৃত্যর কারন উৎঘাটন করে দোষীদের শাস্তির দাবি করেছেন তিনি।

রাজবাড়ীর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার(প্রশাসন ও অর্থ) মোঃ সালাহউদ্দিন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, বিষয়টি দুঃখজনক। এ ঘটনার সাথে যারা জরিত কেউ পার পাবে না। পুলিশ এরই মধ্যে বিভিন্নভাবে কাজ শুরু করেছে। দোষীদের আইনের আওতায় নিয়ে আসা হবে। ঘটনাস্থলসহ আশে পাশে পুলিশি টহল জোরদারসহ তদন্ত চলমান আছে।

জনপ্রিয় সংবাদ

ফরিদপুর- ২ আসনের জনগণের শান্তি নিশ্চিত করা আমার লক্ষ্য: এমপি লাবু চৌধুরী

রাজবাড়ীতে সন্ত্রাসীদের গুলিতে নিহত ছাত্রলীগ নেতা সবুজ

আপডেট সময় ০২:৩১:০২ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ২৪ এপ্রিল ২০২৩

মীর সামসুজ্জামান, রাজবাড়ী, রাজবাড়ীতে সন্ত্রাসীদের গুলিতে সদর উপজেলা ছাত্রলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও বরাট ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি শেখ সুমন সবুজ(২৮) নিহত হয়েছে।এ ঘটনায় গুলিবৃদ্ধ হয়ে আহত হয়েছে আরো দুই জন।

রোববার(২৩ এপ্রিল) রাত সাড়ে ১০ টার দিকে সদর উপজেলার বরাট ইউনিয়নের উড়াকান্দা এলাকায় সবুজের নিজ বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত সবুজ শেখ রাজবাড়ী সদর উপজেলার বরাট ইউনিয়নের উড়াকান্দা এলাকার শামসুল আলম ওরফে কালা বাবুর ছেলে।
ও বরাট ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শেখ ফরিদের ভাতিজা।

আহতরা হলো,একই এলাকার সজীব হোসেন ও মহায় মমীন।

স্থানীয়রা সূত্রে জানা গেছে,রোববার রাতে বরাট ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি সবুজ, তার বন্ধু সজীব ও স্পীডবোর্ড চালক মহায় মমীন সহ মোট নয় জন সবুজের নিজ বাড়ির রুমে বসে গল্প করছিলেন।এ সময় তার ঘরের জানালা দিয়ে দুর্বৃত্তরা গুলি ছুড়লে তারা তিনজনই গুরুতর আহত ও গুলিবৃদ্ধ হয়।
স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করে ফরিদপুর বঙ্গবন্ধু মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক সবুজকে মৃত্য ঘোষনা করে।

বরাট ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নিহত সবুজের চাচা শেখ ফরিদ জানান, সবুজ রাত সাড়ে ৯টার সময় উড়াকান্দা পদ্মা নদীর পাড়ে অবস্থিত গল্পগৃহ রির্সোট থেকে বাড়িতে এসে বন্ধুদের নিয়ে ঘরের মধ্যে হিসেব করছিল।এমন সময় বাড়ির সামনে একটি ককটেল বিস্ফোরণ ঘটিয়ে আতংক সৃষ্টি করে।পরে এক দল সন্ত্রাসী বাড়িতে প্রবেশ করে জানালা দিয়ে এলোপাতাড়ি গুলি বর্ষণ করে পালিয়ে যায়। এতে সবুজের মাথায় কয়েকটি গুলি লাগে। সাথে সাথে তাকে উদ্ধার রাজবাড়ী সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে তার অবস্থার অবনতি দেখে চিকিৎসক ফরিদপুরে রেফার্ড করে।পরে ফরিদপুর হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার কিছু সময় পরেই তার মৃত্যু হয়।

রাজবাড়ী জেলা ছাত্রলীগের সাধারন সম্পাদক জাহিদুল ইসলাম জাহিদ বলেন, বিষয়টি খুবই মর্মান্তিক।সবুজ ছাত্রলীগের একজন নিবেদিত নেতা ছিলেন। তার মৃত্যর কারন উৎঘাটন করে দোষীদের শাস্তির দাবি করেছেন তিনি।

রাজবাড়ীর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার(প্রশাসন ও অর্থ) মোঃ সালাহউদ্দিন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, বিষয়টি দুঃখজনক। এ ঘটনার সাথে যারা জরিত কেউ পার পাবে না। পুলিশ এরই মধ্যে বিভিন্নভাবে কাজ শুরু করেছে। দোষীদের আইনের আওতায় নিয়ে আসা হবে। ঘটনাস্থলসহ আশে পাশে পুলিশি টহল জোরদারসহ তদন্ত চলমান আছে।