ঢাকা ১০:৫৩ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১০ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

অবৈধ ইটভাটায় অভিযান, দুইটিকে ১০ লাখ টাকা জরিমানা

  • নিজস্ব সংবাদ :
  • আপডেট সময় ১০:০৫:০২ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৯ মার্চ ২০২৩
  • ৯৫ বার পড়া হয়েছে

মানিকগঞ্জ প্রতিনিধি, ২৯ মার্চ মানিকগঞ্জের তিনটি উপজেলার সাতটি অবৈধ ইটভাটায় ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালানা করেছে পরিবেশ অধিদপ্তর। অভিযানে ২টি ইটভাটাকে দশ লক্ষ টাকা জরিমানা করা হয়েছে এবং ৫টি ইটভাটা স্থায়ীভাবে বন্ধ পাওয়া যায়।

বুধবার (২৯মার্চ) দিনব্যাপী পরিবেশ অধিদপ্তরের সদর দপ্তরের মনিটরিং ও এনফোর্সমেন্ট উইং এর নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট নেহের নিগার তনুর নেতৃত্বে এ মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করা হয়।

অভিযানে ইট প্রস্তুত ও ভাটা স্থাপন (নিয়ন্ত্রণ) আইন ২০১৩ (সংশোধিত ২০১৯) এর আলোকে অবৈধভাবে ভাটায় ইট পোড়ানোর দায়ে সদর উপজেলার লেমুবাড়ি এলাকার মেসার্স এমিকা ব্রিকসকে ৬ লক্ষ টাকা এবং সাটুরিয়া উপজেলার গোলড়া এলাকার মেসার্স ফৌজিয়া ব্রিকসকে ৪ লক্ষ টাকা জরিমানা ধার্য ও আদায় করা হয়। এ সময় আদালতে রীট চলমান থাকায় সিংগাইর উপজেলার খোলাপাড়া এলাকার মেসার্স মোহনা ব্রিকসের বিরুদ্ধে কোন আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হয়নি। এছাড়া সিংগাইর উপজেলার খোলাপাড়া এলাকার মেসার্স সুমাইয়া ব্রিকস, আব্দুস সোবহান ব্রিকস-১, সদর উপজেলার লেমুবাড়ি এলাকার মেসার্স একতা ব্রিকস ও মেসার্স আব্দুল্লাহ আল সোবহান ব্রিকস-২ স্থায়ীভাবে বন্ধ থাকায় কোন আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হয়নি।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন জেলা পরিবেশ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক মোঃ সাইফুল ইসলাম, সহকারী পরিচালক লোভানা জামিল।

উপ-পরিচালক মোঃ সাইফুল ইসলাম ইটভাটা অন্যত্র স্থানান্তর/বন্ধ করার জন্য মালিকদের নির্দেশনা প্রদান করেন এবং ব্লক ইট প্রস্তুতে উৎসাহিত করেন।

মোবাইল কোর্ট পরিচালনায় সময় প্রসিকিউশন প্রদান করেন পরিদর্শক মোঃ হাবিবুর রহমান এবং সার্বিক সহযোগিতা করেন জেলা পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরা।

ট্যাগস :
জনপ্রিয় সংবাদ

দাঁড়ি বড় রাখায় যুবককে পেটালেন ইউপি চেয়ারম্যান ও তার ছেলে!

অবৈধ ইটভাটায় অভিযান, দুইটিকে ১০ লাখ টাকা জরিমানা

আপডেট সময় ১০:০৫:০২ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৯ মার্চ ২০২৩

মানিকগঞ্জ প্রতিনিধি, ২৯ মার্চ মানিকগঞ্জের তিনটি উপজেলার সাতটি অবৈধ ইটভাটায় ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালানা করেছে পরিবেশ অধিদপ্তর। অভিযানে ২টি ইটভাটাকে দশ লক্ষ টাকা জরিমানা করা হয়েছে এবং ৫টি ইটভাটা স্থায়ীভাবে বন্ধ পাওয়া যায়।

বুধবার (২৯মার্চ) দিনব্যাপী পরিবেশ অধিদপ্তরের সদর দপ্তরের মনিটরিং ও এনফোর্সমেন্ট উইং এর নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট নেহের নিগার তনুর নেতৃত্বে এ মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করা হয়।

অভিযানে ইট প্রস্তুত ও ভাটা স্থাপন (নিয়ন্ত্রণ) আইন ২০১৩ (সংশোধিত ২০১৯) এর আলোকে অবৈধভাবে ভাটায় ইট পোড়ানোর দায়ে সদর উপজেলার লেমুবাড়ি এলাকার মেসার্স এমিকা ব্রিকসকে ৬ লক্ষ টাকা এবং সাটুরিয়া উপজেলার গোলড়া এলাকার মেসার্স ফৌজিয়া ব্রিকসকে ৪ লক্ষ টাকা জরিমানা ধার্য ও আদায় করা হয়। এ সময় আদালতে রীট চলমান থাকায় সিংগাইর উপজেলার খোলাপাড়া এলাকার মেসার্স মোহনা ব্রিকসের বিরুদ্ধে কোন আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হয়নি। এছাড়া সিংগাইর উপজেলার খোলাপাড়া এলাকার মেসার্স সুমাইয়া ব্রিকস, আব্দুস সোবহান ব্রিকস-১, সদর উপজেলার লেমুবাড়ি এলাকার মেসার্স একতা ব্রিকস ও মেসার্স আব্দুল্লাহ আল সোবহান ব্রিকস-২ স্থায়ীভাবে বন্ধ থাকায় কোন আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হয়নি।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন জেলা পরিবেশ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক মোঃ সাইফুল ইসলাম, সহকারী পরিচালক লোভানা জামিল।

উপ-পরিচালক মোঃ সাইফুল ইসলাম ইটভাটা অন্যত্র স্থানান্তর/বন্ধ করার জন্য মালিকদের নির্দেশনা প্রদান করেন এবং ব্লক ইট প্রস্তুতে উৎসাহিত করেন।

মোবাইল কোর্ট পরিচালনায় সময় প্রসিকিউশন প্রদান করেন পরিদর্শক মোঃ হাবিবুর রহমান এবং সার্বিক সহযোগিতা করেন জেলা পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরা।