ঢাকা ১১:০৮ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২০ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ৮ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

ছেলে ডিভোর্স দেয়ার ১০ দিন পরে পুত্রবধূকে বিয়ে করেন শ্বশুর

  • নিজস্ব সংবাদ :
  • আপডেট সময় ১০:২৯:৪৭ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৩
  • ১০৯ বার পড়া হয়েছে

রাজবাড়ীর পাংশায় পুত্রবধুকে বিয়ে করায় কলহের জেরে শশুর হামিদুল (৪৩) এর আআত্মহত্যার ঘটনা ঘটেছে। শুক্রবার ২৪ ফেব্রুয়ারী উপজেলার পাট্টা ইউনিয়নে পুঁইজোর খালপাড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

প্রায় দুই বছর পূর্বে হামিদুলের ছেলে নয়ন ১৮ এর সাথে বালিয়াকান্দি রামদিয়া বারমল্লিকা গ্রামের কাশেম মন্ডলের মেয়ে জাহানারা ২০ এর পারিবারিক ভাবে বিয়ে হয়। বিয়ের দের বছরের মাথায় একটি ছেলে সন্তান হয়। এরপর কোন এক সময় থেকে শশুরের সঙ্গে অনৈতিক সম্পর্কে জরিয়ে পরে সে। বিষয়টা জানাজানি হলে ঘরোয়াভাবে এটার সমাধানের চেষ্টা চলে।

পরে ১০ ফেব্রুয়ারী স্বামী নয়নকে ডিভোর্স দিয়ে ২০ ফেব্রুয়ারী রাজবাড়ী কোর্টে গিয়ে শশুর হামিদুলকে বিয়ে করে। এটি জানাজানি হলে সংসারে শুরু হয় অশান্তির ঝর। গত ২৪ ফেব্রুয়ারী রাতে কিছু অজ্ঞাত লোক এসে কথা আছে বলে হামিদুলকে ডাকাডাকি করে এবং ঘর থেকে বের হয়ে বাইরে আসতে বলে। এতে হামিদুল বেশ ভয় পায় বলে জানায় নয়ন। এরপর রাত ১১টার দিকে হামিদুল নিজ ঘরের মাচালে উঠে ঘরের আড়ার সাথে রশি পেঁচিয়ে আত্বহত্যা করে বলে জানান নিহতের পরিবার।
বিষয়টা বুঝতে পেরে ছোট স্ত্রী (পুত্রবধু) জাহানারা নিজেও গলায় রশি পেঁচিয়ে আত্বহত্যার চেষ্টা চালায়।
পুলিশ নিহত হামিদুলে লাশ উদ্ধার করে মর্গে প্রেরন করেছে।
লোক-লজ্জা ও পারিবারিক কলহের জেরে হামিদুল আত্বহত্যা করতে পারে বলে মনে করেন এলাকাবাসী।

জনপ্রিয় সংবাদ

ফরিদপুর- ২ আসনের জনগণের শান্তি নিশ্চিত করা আমার লক্ষ্য: এমপি লাবু চৌধুরী

ছেলে ডিভোর্স দেয়ার ১০ দিন পরে পুত্রবধূকে বিয়ে করেন শ্বশুর

আপডেট সময় ১০:২৯:৪৭ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৩

রাজবাড়ীর পাংশায় পুত্রবধুকে বিয়ে করায় কলহের জেরে শশুর হামিদুল (৪৩) এর আআত্মহত্যার ঘটনা ঘটেছে। শুক্রবার ২৪ ফেব্রুয়ারী উপজেলার পাট্টা ইউনিয়নে পুঁইজোর খালপাড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

প্রায় দুই বছর পূর্বে হামিদুলের ছেলে নয়ন ১৮ এর সাথে বালিয়াকান্দি রামদিয়া বারমল্লিকা গ্রামের কাশেম মন্ডলের মেয়ে জাহানারা ২০ এর পারিবারিক ভাবে বিয়ে হয়। বিয়ের দের বছরের মাথায় একটি ছেলে সন্তান হয়। এরপর কোন এক সময় থেকে শশুরের সঙ্গে অনৈতিক সম্পর্কে জরিয়ে পরে সে। বিষয়টা জানাজানি হলে ঘরোয়াভাবে এটার সমাধানের চেষ্টা চলে।

পরে ১০ ফেব্রুয়ারী স্বামী নয়নকে ডিভোর্স দিয়ে ২০ ফেব্রুয়ারী রাজবাড়ী কোর্টে গিয়ে শশুর হামিদুলকে বিয়ে করে। এটি জানাজানি হলে সংসারে শুরু হয় অশান্তির ঝর। গত ২৪ ফেব্রুয়ারী রাতে কিছু অজ্ঞাত লোক এসে কথা আছে বলে হামিদুলকে ডাকাডাকি করে এবং ঘর থেকে বের হয়ে বাইরে আসতে বলে। এতে হামিদুল বেশ ভয় পায় বলে জানায় নয়ন। এরপর রাত ১১টার দিকে হামিদুল নিজ ঘরের মাচালে উঠে ঘরের আড়ার সাথে রশি পেঁচিয়ে আত্বহত্যা করে বলে জানান নিহতের পরিবার।
বিষয়টা বুঝতে পেরে ছোট স্ত্রী (পুত্রবধু) জাহানারা নিজেও গলায় রশি পেঁচিয়ে আত্বহত্যার চেষ্টা চালায়।
পুলিশ নিহত হামিদুলে লাশ উদ্ধার করে মর্গে প্রেরন করেছে।
লোক-লজ্জা ও পারিবারিক কলহের জেরে হামিদুল আত্বহত্যা করতে পারে বলে মনে করেন এলাকাবাসী।