ঢাকা ০৮:৩৫ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ১৯ এপ্রিল ২০২৪, ৬ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ঘরের আড়ায় ঝুলছিল কিশোরীর মরদেহ

  • নিজস্ব সংবাদ :
  • আপডেট সময় ০৭:৫৬:৪২ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২৭ জানুয়ারী ২০২৩
  • ১৩৯ বার পড়া হয়েছে

ঝালকাঠি প্রতিনিধিঃ- ঝালকাঠির নলছিটিতে ষষ্ঠ শ্রেনীতে পড়ুয়া মাদ্রাসা ছাত্রীর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্বার করেছে পুলিশ। শুক্রবার ২৭ জানুৃয়ারি সকালে কুলকাঠি গ্রামে নিজ ঘরের আড়ার সঙ্গে ঝুলছিলো হামিদা আক্তার ইতি নামের ১৩ বছরের ঐ কিশোরী।

কুলকাঠি গ্রামের ফারুক হোসেন খলিফার কণ্যা নিহত কিশোরী কুলকাঠি শহীদিয়া দাখিল মাদরাসায় ষষ্ঠ শ্রেণীতে পড়তো। তবে এটি আত্মহত্যা নাকি হত্যা সে বিষয় এখনো পরিস্কার কোনো তথ্য বা আলামত পাওয়া যায়নি, তবে বিস্তারিত পেতে পোষ্টমর্টেম রিপোর্ট আসা পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হবে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

কিন্তু নিহত কিশোরীর বাবা বলছেন তার মেয়েকে কেউ হত্যা করেছে। সে আত্মহত্যা করেনি বলে দাবী করেছেন মামা ফারুক খলিফা। তিনি সুষ্ঠ তদন্ত এবং দ্রুত হত্যাকারী সনাক্ত করে বিচার চান পুলিশের কাছে।

ঘটনাস্থলের পাশ্ববর্তীরা বলেন, ইতি’র মা সকালে পাশের বাড়িতে লোক মারা গেছে সেখানে গেছিল।ঘরে ও একা ছিল। সকাল ১১টার দিকে পুলিশ এসে ঘরের আড়ায় ঝুলতে থাকা লাশটি উদ্ধার করেছে। নিহত ইতি’র বাবা, মা এবং প্রতিবেশীরা বলেন, পরিবারের কারো সাথে কোন ঝগড়া বা অভিমানজনিত কোনো ঘটনা ঘটেনি।

নলছিটি থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. আতাউর রহমান জানান, খবর পেয়ে মৃতদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ঝালকাঠি সদর হাসপাতালের পাঠানো হয়েছে। হামিদার পরিবারের পক্ষ থেকে অভিযোগ করায় থানায় একটি অপমৃত্যুর মামলা করা হয়েছে। তবে হত্যা না আত্মহত্যা তা এখনই বলা যাচ্ছে না। ময়নাতদন্তের রিপোর্ট পেলে নিশ্চিতভাবে বলা যাবে।

এইচ এম নাসির উদ্দিন আকাশ
ঝালকাঠি প্রতিনিধি।

রাজবাড়ীর পাংশায় প্রান্তিক জনকল্যাণ সংস্থা কতৃক আয়োজিত ঈদ পূর্ণমিলন

ঘরের আড়ায় ঝুলছিল কিশোরীর মরদেহ

আপডেট সময় ০৭:৫৬:৪২ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২৭ জানুয়ারী ২০২৩

ঝালকাঠি প্রতিনিধিঃ- ঝালকাঠির নলছিটিতে ষষ্ঠ শ্রেনীতে পড়ুয়া মাদ্রাসা ছাত্রীর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্বার করেছে পুলিশ। শুক্রবার ২৭ জানুৃয়ারি সকালে কুলকাঠি গ্রামে নিজ ঘরের আড়ার সঙ্গে ঝুলছিলো হামিদা আক্তার ইতি নামের ১৩ বছরের ঐ কিশোরী।

কুলকাঠি গ্রামের ফারুক হোসেন খলিফার কণ্যা নিহত কিশোরী কুলকাঠি শহীদিয়া দাখিল মাদরাসায় ষষ্ঠ শ্রেণীতে পড়তো। তবে এটি আত্মহত্যা নাকি হত্যা সে বিষয় এখনো পরিস্কার কোনো তথ্য বা আলামত পাওয়া যায়নি, তবে বিস্তারিত পেতে পোষ্টমর্টেম রিপোর্ট আসা পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হবে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

কিন্তু নিহত কিশোরীর বাবা বলছেন তার মেয়েকে কেউ হত্যা করেছে। সে আত্মহত্যা করেনি বলে দাবী করেছেন মামা ফারুক খলিফা। তিনি সুষ্ঠ তদন্ত এবং দ্রুত হত্যাকারী সনাক্ত করে বিচার চান পুলিশের কাছে।

ঘটনাস্থলের পাশ্ববর্তীরা বলেন, ইতি’র মা সকালে পাশের বাড়িতে লোক মারা গেছে সেখানে গেছিল।ঘরে ও একা ছিল। সকাল ১১টার দিকে পুলিশ এসে ঘরের আড়ায় ঝুলতে থাকা লাশটি উদ্ধার করেছে। নিহত ইতি’র বাবা, মা এবং প্রতিবেশীরা বলেন, পরিবারের কারো সাথে কোন ঝগড়া বা অভিমানজনিত কোনো ঘটনা ঘটেনি।

নলছিটি থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. আতাউর রহমান জানান, খবর পেয়ে মৃতদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ঝালকাঠি সদর হাসপাতালের পাঠানো হয়েছে। হামিদার পরিবারের পক্ষ থেকে অভিযোগ করায় থানায় একটি অপমৃত্যুর মামলা করা হয়েছে। তবে হত্যা না আত্মহত্যা তা এখনই বলা যাচ্ছে না। ময়নাতদন্তের রিপোর্ট পেলে নিশ্চিতভাবে বলা যাবে।

এইচ এম নাসির উদ্দিন আকাশ
ঝালকাঠি প্রতিনিধি।