ঢাকা ০৩:১৮ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ৩১ জানুয়ারী ২০২৩, ১৭ মাঘ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

করোনার নতুন ভ্যারিয়েন্ট তেমন ক্ষতিকারক নয়: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

  • নিজস্ব সংবাদ :
  • আপডেট সময় ১১:৫৮:২২ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৯ ডিসেম্বর ২০২২
  • ৫২ বার পড়া হয়েছে

মানিকগঞ্জ প্রতিনিধি, ২৯ ডিসেম্বর
স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণমন্ত্রী জাহিদ মালেক স্বপন বলেছেন, করোনা ভাইরাস নিয়ন্ত্রনে আছে, কিন্তু চলে যায়নি। করোনার নতুন সংক্রমণ নিয়ে উদ্বিগ্ন হওয়ার কারণ নেই। করোনার নতুন ভ্যারিয়েন্ট তেমন ক্ষতিকারক নয়, কিন্তু এটি ছড়ায় বেশি। যারা চীন বা অন্য দেশ থেকে আসে তাদের যেন এন্টিজেন্ট টেস্ট করা হয়, এর ব্যবস্থা আমরা নিয়েছি। আমরা হাসপাতালগুলোকেও তৈরি রেখেছি।

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় মানিকগঞ্জ সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে ‘মুক্তিযুদ্ধের বিজয় মেলার’ উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে মন্ত্রী এসব কথা বলেন।

মন্ত্রী বলেন, চীন থেকে আসা কিছু লোকের দেহে আমরা করোনার উপসর্গ পেয়েছি, কি ধরনের ভ্যারিয়েন্ট তা জানতে সময় লাগবে। আমরা তাদের ৮ জনকে হাসপাতালের আইসোলেশনে রেখেছি। ভাইরাস মুক্ত না হওয়া পর্যন্ত তারা আইসোলেশনে থাকবে।

এসময় বিজয় মেলার আহ্বায়ক,জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা গোলাম মহ্উীদ্দীন, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বীরমুক্তিযোদ্ধা আব্দুস সালাম, জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সুলতানুল আজম খান আপেল, পৌর মেয়র মো. রমজান আলী, সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক সুদেব কুমার সাহা, জেলা যুবলীগের আহবায়ক আব্দুর রাজ্জাক রাজা ও যুগ্ম আহবায়ক মাহাবুবুর রহমান জনিসহ অন্যান্যরা উপস্থিত ছিলেন।

জনপ্রিয় সংবাদ

করোনার নতুন ভ্যারিয়েন্ট তেমন ক্ষতিকারক নয়: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

আপডেট সময় ১১:৫৮:২২ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৯ ডিসেম্বর ২০২২

মানিকগঞ্জ প্রতিনিধি, ২৯ ডিসেম্বর
স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণমন্ত্রী জাহিদ মালেক স্বপন বলেছেন, করোনা ভাইরাস নিয়ন্ত্রনে আছে, কিন্তু চলে যায়নি। করোনার নতুন সংক্রমণ নিয়ে উদ্বিগ্ন হওয়ার কারণ নেই। করোনার নতুন ভ্যারিয়েন্ট তেমন ক্ষতিকারক নয়, কিন্তু এটি ছড়ায় বেশি। যারা চীন বা অন্য দেশ থেকে আসে তাদের যেন এন্টিজেন্ট টেস্ট করা হয়, এর ব্যবস্থা আমরা নিয়েছি। আমরা হাসপাতালগুলোকেও তৈরি রেখেছি।

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় মানিকগঞ্জ সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে ‘মুক্তিযুদ্ধের বিজয় মেলার’ উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে মন্ত্রী এসব কথা বলেন।

মন্ত্রী বলেন, চীন থেকে আসা কিছু লোকের দেহে আমরা করোনার উপসর্গ পেয়েছি, কি ধরনের ভ্যারিয়েন্ট তা জানতে সময় লাগবে। আমরা তাদের ৮ জনকে হাসপাতালের আইসোলেশনে রেখেছি। ভাইরাস মুক্ত না হওয়া পর্যন্ত তারা আইসোলেশনে থাকবে।

এসময় বিজয় মেলার আহ্বায়ক,জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা গোলাম মহ্উীদ্দীন, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বীরমুক্তিযোদ্ধা আব্দুস সালাম, জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সুলতানুল আজম খান আপেল, পৌর মেয়র মো. রমজান আলী, সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক সুদেব কুমার সাহা, জেলা যুবলীগের আহবায়ক আব্দুর রাজ্জাক রাজা ও যুগ্ম আহবায়ক মাহাবুবুর রহমান জনিসহ অন্যান্যরা উপস্থিত ছিলেন।