ঢাকা ০৪:১৫ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ১৯ এপ্রিল ২০২৪, ৫ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
রাজবাড়ীতে আ.লীগের শফিকুল মোরশেদ জয়ী

রাজবাড়ীতে আ.লীগের শফিকুল মোরশেদ জয়ী

  • সুজন বিষ্ণু
  • আপডেট সময় ০৯:০৯:৩১ অপরাহ্ন, সোমবার, ১৭ অক্টোবর ২০২২
  • ২৩৮ বার পড়া হয়েছে

রাজবাড়ী জেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী এ কে এম শফিকুল মোরশেদ আরুজ জয়লাভ করেছেন।

শফিকুল মোরশেদ তালগাছ প্রতীক নিয়ে ৪২৮ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী দীপক কুণ্ডু পেয়েছেন ১৩৮ ভোট। এ ছাড়া অপর প্রার্থী ইমামুজ্জামান চৌধুরী পেয়েছেন ২৮ ভোট।

সোমবার (১৭ অক্টোবর) সকাল ৯টা থেকে দুপুর ২টা পর্যন্ত জেলার ৫টি উপজেলায় ৫টি ভোটকেন্দ্রে শান্তিপূর্ণভাবে ইভিএমে ভোট গ্রহণ হয়।

নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থীসহ মোট তিনজন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন। এ ছাড়া ৫টি সাধারণ ওয়ার্ড সদস্যপদে ১৮ জন ও একটি সংরক্ষিত মহিলা ওয়ার্ড সদস্যপদে ৭ জনসহ মোট ২৮ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন।

১ নম্বর ওয়ার্ডে (রাজবাড়ী সদর উপজলো) আজম আলী মণ্ডল অটোরিকশা প্রতীক নিয়ে ৯৫ ভোট, ২ নম্বর ওয়ার্ডে (গোয়ালন্দ উপজেলা) মো. ইউনুস মোল্লা তালা প্রতীক নিয়ে ২৪ ভোট, ৩ নম্বর ওয়ার্ডে (পাংশা উপজেলা) গোবিন্দ কুমার কুণ্ডু উট পাখি প্রতীক নিয়ে ৯৯ ভোট, ৪ নম্বর ওয়ার্ডে (বালিয়াকান্দি উপজেলা) মো. আব্দুল বারিক বিশ্বাস অটোরিকশা প্রতীক নিয়ে ৩৬ ভোট ও ৫ নম্বর ওয়ার্ডে (কালুখালী উপজেলা) মো. ইউসুফ হোসেন তালা প্রতীক নিয়ে ৪৯ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন।

১ নম্বর সংরক্ষিত ওয়ার্ডে (রাজবাড়ী সদর ও গোয়ালন্দ উপজেলা) মিসেস সাহানা বেগম ৮৬ ভোট ও ২ নম্বর সংরক্ষিত মহিলা ওয়ার্ডে (পাংশা, কালুখালী ও বালিয়াকান্দি উপজেলা) সফুরা খাতুন নামে একজন প্রার্থী বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় বিজয়ী হয়েছেন।

এ নির্বাচনে স্থানীয় সরকারের নির্বাচিত মোট ৫৯৮ জন জনপ্রতিনিধির মধ্যে ৫৯৫ জন ভোটাধিকার প্রয়োগ করেন। এর মধ্যে ২টি ভোট বাতিল বলে ঘোষণা করা হয়।

রাজবাড়ীর পাংশায় প্রান্তিক জনকল্যাণ সংস্থা কতৃক আয়োজিত ঈদ পূর্ণমিলন

রাজবাড়ীতে আ.লীগের শফিকুল মোরশেদ জয়ী

রাজবাড়ীতে আ.লীগের শফিকুল মোরশেদ জয়ী

আপডেট সময় ০৯:০৯:৩১ অপরাহ্ন, সোমবার, ১৭ অক্টোবর ২০২২

রাজবাড়ী জেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী এ কে এম শফিকুল মোরশেদ আরুজ জয়লাভ করেছেন।

শফিকুল মোরশেদ তালগাছ প্রতীক নিয়ে ৪২৮ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী দীপক কুণ্ডু পেয়েছেন ১৩৮ ভোট। এ ছাড়া অপর প্রার্থী ইমামুজ্জামান চৌধুরী পেয়েছেন ২৮ ভোট।

সোমবার (১৭ অক্টোবর) সকাল ৯টা থেকে দুপুর ২টা পর্যন্ত জেলার ৫টি উপজেলায় ৫টি ভোটকেন্দ্রে শান্তিপূর্ণভাবে ইভিএমে ভোট গ্রহণ হয়।

নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থীসহ মোট তিনজন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন। এ ছাড়া ৫টি সাধারণ ওয়ার্ড সদস্যপদে ১৮ জন ও একটি সংরক্ষিত মহিলা ওয়ার্ড সদস্যপদে ৭ জনসহ মোট ২৮ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন।

১ নম্বর ওয়ার্ডে (রাজবাড়ী সদর উপজলো) আজম আলী মণ্ডল অটোরিকশা প্রতীক নিয়ে ৯৫ ভোট, ২ নম্বর ওয়ার্ডে (গোয়ালন্দ উপজেলা) মো. ইউনুস মোল্লা তালা প্রতীক নিয়ে ২৪ ভোট, ৩ নম্বর ওয়ার্ডে (পাংশা উপজেলা) গোবিন্দ কুমার কুণ্ডু উট পাখি প্রতীক নিয়ে ৯৯ ভোট, ৪ নম্বর ওয়ার্ডে (বালিয়াকান্দি উপজেলা) মো. আব্দুল বারিক বিশ্বাস অটোরিকশা প্রতীক নিয়ে ৩৬ ভোট ও ৫ নম্বর ওয়ার্ডে (কালুখালী উপজেলা) মো. ইউসুফ হোসেন তালা প্রতীক নিয়ে ৪৯ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন।

১ নম্বর সংরক্ষিত ওয়ার্ডে (রাজবাড়ী সদর ও গোয়ালন্দ উপজেলা) মিসেস সাহানা বেগম ৮৬ ভোট ও ২ নম্বর সংরক্ষিত মহিলা ওয়ার্ডে (পাংশা, কালুখালী ও বালিয়াকান্দি উপজেলা) সফুরা খাতুন নামে একজন প্রার্থী বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় বিজয়ী হয়েছেন।

এ নির্বাচনে স্থানীয় সরকারের নির্বাচিত মোট ৫৯৮ জন জনপ্রতিনিধির মধ্যে ৫৯৫ জন ভোটাধিকার প্রয়োগ করেন। এর মধ্যে ২টি ভোট বাতিল বলে ঘোষণা করা হয়।